শিরোনাম :

বি. চৌধুরীকে বাদ দিয়ে বিকল্পধারার কমিটি


শুক্রবার, ১৯ অক্টোবর ২০১৮, ০২:২০ অপরাহ্ণ, বাংলাপ্রেস ডটকম ডটবিডি

বি. চৌধুরীকে বাদ দিয়ে বিকল্পধারার কমিটি

ঢাকা: বিকল্পধারা বাংলাদেশের প্রতিষ্ঠাতা প্রেসিডেন্ট ডা. একিউএম বদরুদ্দোজা চৌধুরী, মহাসচিব মেজর (অব.) আবদুল মান্নান ও যুগ্ম মহাসচিব মাহী বি. চৌধুরীকে দল থেকে বাদ দিয়ে নতুন কমিটি ঘোষণা করা হয়েছে।

শুক্রবার বেলা ১১টার দিকে জাতীয় প্রেসক্লাব চত্বরে সাংবাদিক সম্মলন করে এ ঘোষণা করেন ড. নরুল আমিন ব্যাপারী। তিনি নিজেকে বিকল্পধারা বাংলাদেশের প্রেসিডেন্ট হিসেবে ঘোষণা করেন। তার সঙ্গে সাধারণ সম্পাদক হিসেবে শাহ আহম্মেদ বাদলের নাম ঘোষণা করেন।

নরুল আমিন বলেন, ‘দলীয় গঠন তন্ত্র অনুযায়ী বিকল্প ধারা বাংলাদেশের প্রেসিডেন্ট বদরুদ্দোজা চৌধুরী, মহাসচিব আবদুল মান্নান ও যুগ্ম মহাসচিব মাহী চৌধুরীকে দল থেকে অব্যাহতি দেওয়া হলো। বিকল্প ধারার তিনজন বাদে সবাই আমাদের সঙ্গে আছেন এবং শিগগিরই পূর্ণাঙ্গ কমিটির নাম ঘোষণা করা হবে।’

জামায়াত প্রশ্নে বি. চৌধুরীর জাতীয় ঐক্যফ্রন্টে যায়নি আপনারা কী করবেন এমনে প্রসঙ্গে নুরুল আমিন বলেন, ‘আমাদের দলের কেউ জামায়াতকে সমর্থন করে না। এটা মাহী চৌধুরীর কূটচাল। আজকে মেজর মান্নানের দুর্নীতির খবর বের হয়েছে। কোনও দুর্নীতিবাজ বিকল্প ধারায় থাকতে পারে না।’ তারা জাতীয় ঐক্যফ্রন্টে যাবে বলেও জানান নুরুল আমিন।

শাহ আহম্মেদ বাদল বলেন, ‘প্রেস ক্লাবে আমাদের হল বুকিং দেওয়া থাকলেও হঠাৎ করে তা বাতিল করে দেওয়া হয়। তাই আজকে এখানে (প্রেস ক্লাব চত্বরে) ঘোষণা দিতে হচ্ছে।’

তিনি বলেন, ‘বি. চৌধুরী অত্যন্ত ভালো মানুষ। কিন্তু তার ছেলে মাহী চৌধুরীর কূটচালে তিনি শেষ পযন্ত জাতীয় ঐক্যফ্রন্টে যোগ দিতে পারেননি।

বাদল বলেন, ‘আজকে কিছু মানুষ রাতের অন্ধকারে সরকারের সঙ্গে আঁতাত করে মানুষকে বিপদে ঠেলে দিতে চায়। দেশে অবাধ নির্বাচন জনগণের দাবি। এই দাবিতে জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট গঠিত হয়েছে। আমরা বিকল্প ধারার সব নেতাকর্মী সিদ্ধান্ত নিয়েছি ঐক্যফ্রন্টের নেতৃত্বে আন্দোলনে অংশ নেবো।’

তার দাবি, শুক্রবার সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত সবাই বিকল্পধারার মূলস্রোতের। এর বাইরে অবস্থানকারীরা জন আকাঙ্ক্ষাবিরোধী শক্তি।

তিনি বলেন, ‘আমাদের মূল লক্ষ্য হলো দেশে একটি অবাধ ও সুষ্ঠু নির্বাচনের মাধ্যমে জনগণের সরকার প্রতিষ্ঠা হোক। জাতির সংকট মোকাবিলা করতে এ অস্থায়ী কমিটির ঘোষণা করা হলো। যতদ্রুত সম্ভব দলীয় গঠনতন্ত্র মোতাবেক পূর্ণাঙ্গ কমিটি ঘোষণা করা হবে।’

অন্তবর্তীকালীন এ সময়ে ঘোষিত অস্থায়ী কমিটি জাতীয় ঐক্য ফ্রন্ট-এর যে কোনও কর্মসূচিতে বিকল্পধারার একমাত্র বৈধ নেতৃত্ব বলে বিবেচিত হবে।

এ প্রসঙ্গে বি. চৌধুরীর প্রেসসচিব জাহাঙ্গীর আলম বলেন, ‘এই দুইজনকে গত ২৬ সেপ্টেম্বর দল থেকে বহিষ্কার করা হয়েছে। তাদের এই ঘোষণা অবৈধ।’

বিকল্প ধারার মহাসচিব মান্নান বলেন, ‘শাহ আহম্মেদ বাদলকে আমরা দল থেকে বহিষ্কার করেছি। আর নরুল আলম ব্যাপারী গত ৪ বছর দলে নিষ্ক্রিয় ছিলেন। সুতারাং তাদের এই কমিটিকে আমরা গুরুত্ব দিচ্ছি না। তার কোনও প্রতিবাদও করবো না।’

প্রসঙ্গত, অধ্যাপক নরুল আলম ব্যাপারী বিকল্পধারা প্রেসিডিয়াম সদস্য ছিলেন আর অ্যাডভোকেট শাহ আহমেদ বাদল সহসভাপতি ছিলেন। তাদেরকে গত ১৩ অক্টোবর দল থেকে বহিষ্কার করা হয় বি.চৌধুরী নেতৃত্বধীন বিকল্পধারা

এ বিভাগের আরো সংবাদ

মন্তব্য করুন