শিরোনাম :

ছাত্রলীগের কমিটি থেকে ‘বিতর্কিতদের’ বাদ দেওয়ার নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর


বৃহস্পতিবার, ১৬ মে ২০১৯, ১১:৩১ পূর্বাহ্ণ, বাংলাপ্রেস ডটকম ডটবিডি

ছাত্রলীগের কমিটি থেকে ‘বিতর্কিতদের’ বাদ দেওয়ার নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর

ঢাকা,১৬ মে (বাংলাপ্রেস): আওয়ামী লীগের ভ্রাতৃপ্রতিম সংগঠন ছাত্রলীগের সদ্য ঘোষিত পূর্ণাঙ্গ কমিটি থেকে ‘বিতর্কিতদের’ বাদ দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। গতকাল বুধবার দুপুরে ছাত্রসংগঠনটির সভাপতি রেজওয়ানুল হক চৌধুরী শোভন ও সাধারণ সম্পাদক গোলাম রাব্বানী গণভবনে সাক্ষাৎ করতে গেলে আওয়ামী লীগ সভাপতি এই নির্দেশ দেন।

রেজওয়ানুল হক চৌধুরী শোভন বলেন, “প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ছাত্রলীগের কমিটি থেকে ‘বিতর্কিত’ যেসব নেতার নাম আসছে তাদের বাদ দিতে নির্দেশ দিয়েছেন। নির্দেশনা অনুযায়ী আগামী এক সপ্তাহের মধ্যে তদন্ত কমিটি করে বিতর্কিতদের চিহ্নিত করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।”

ছাত্রলীগ সভাপতি জানান, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ছাত্রলীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটি নিয়ে ওঠা অভিযোগ যাচাই-বাছাই করার নির্দেশ দিয়েছেন। যাদের বিরুদ্ধে অভিযোগের সত্যতা পাওয়া যাবে, তাদের সংগঠন থেকে অব্যাহতি দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন তিনি। কারো বিরুদ্ধে খুনের মামলা থাকলে, কেউ বিবাহিত হলে, মাদক কারবারের সঙ্গে সংশ্লিষ্টতা থাকলে এবং যাদের পরিবার বিএনপি-জামায়াতের রাজনীতির সঙ্গে সম্পর্কিত ও মানবতাবিরোধী অপরাধে অভিযুক্ত, তাদেরও কমিটি থেকে বাদ দিতে বলেছেন।

সূত্র জানায়, ছাত্রলীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠনের পর বিক্ষোভ করে পদবঞ্চিতদের একাংশ। এ ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে গতকাল প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে গণভবনে দেখা করতে যান বর্তমান সভাপতি শোভন ও সাধারণ সম্পাদক গোলাম রাব্বানী। এ সময় আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর কবির নানক, আবদুর রহমানসহ বেশ কয়েকজন শীর্ষস্থানীয় নেতা উপস্থিত ছিলেন। প্রধানমন্ত্রী তাঁদের কাছে বিতর্কিতদের নিয়ে কমিটি করার কারণ জানতে চান। তাঁরা কোনো সদুত্তর দিতে পারেননি। পরে প্রধানমন্ত্রী একটি নামের তালিকা শোভন ও রাব্বানীকে দেন। গণভবনে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে দেখা করে ফিরে রাতে ছাত্রলীগের বর্তমান সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক আওয়ামী লীগের শীর্ষস্থানীয় নেতাদের সঙ্গে ধানমণ্ডির আওয়ামী লীগ কার্যালয়ে বৈঠক করেন বলে জানা গেছে।

এদিকে ছাত্রলীগের পদবঞ্চিত সাবেক কর্মসূচি ও পরিকল্পনাবিষয়ক সম্পাদক রাকিব হোসেন বলেন, বিতর্কিতদের বাদ দিতে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশের বিষয়টি তাঁরা জানতে পেরেছেন। আলোচনা করে পরে তাঁরা অবস্থান জানাবেন।

‘২৪ ঘণ্টার মধ্যে ব্যবস্থা’ : এদিকে গতকাল রাতে ধানমণ্ডিতে আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার রাজনৈতিক কার্যালয়ে জরুরি সংবাদ সম্মেলনে করেছে ছাত্রলীগ। এ সময় সংগঠনটির কেন্দ্রীয় সভাপতি রেজওয়ানুল হক চৌধুরী শোভন বলেন, সদ্য ঘোষিত কমিটির অনেকের নামে অভিযোগ এসেছে। আগামী ২৪ ঘণ্টার ভেতরে তা যাচাই-বাছাই করে প্রমাণ সাপেক্ষে পদ শূন্য ঘোষণা করা হবে।

তিনি বলেন, প্রাথমিকভাবে ১৭ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগ এসেছে। ২৪ ঘণ্টার মধ্যে তারা যদি নিজেদের নির্দোষ দাবি করতে না পারে, তাহলে পদগুলো খালি ঘোষণা করা হবে।

সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক গোলাম রাব্বানী বলেন, ‘এখন পর্যন্ত আমাদের কাছে কেউ লিখিত অভিযোগ করেনি। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ও গণমাধ্যমে প্রকাশিত তথ্যের ভিত্তিতে আমরা প্রাথমিকভাবে কাজ করছি।’

সংবাদ সম্মেলনে বলা হয়, ঘোষিত কমিটির মধ্যে তানজিল ভূঁইয়া তানভীর, সুরঞ্জন ঘোষ, আরেফিন সিদ্দিক সুজন, আতিকুর রহমান খান, বরকত হোসেন হাওলাদার, শাহরিয়ার কবির বিদ্যুৎ, মাহমুদুল হাসান তুষার, মাহমুদুল হাসান, আমিনুল ইসলাম বুলবুল, আহসান হাবিব, সাদিক খান, তৌফিকুল হাসান সাগর, সোহাগী হাসান তিথি, রুশী চৌধুরী, আফরিন লাবণী ও মুনমুন নাহার বৈশাখীর নামে অভিযোগ মিলেছে।

এ বিভাগের আরো সংবাদ

মন্তব্য করুন