শিরোনাম :
   প্রধান বিচারপতির সরে যাওয়া উচিত ছিল : প্রধানমন্ত্রী    নায়করাজ রাজ্জাকের মৃত্যুতে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর শোক    কিংবদন্তি অভিনেতা নায়করাজ রাজ্জাক আজ সন্ধ্যা ৬টা ১৩ মিনিটে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাহি রাজিউন)    কিংবদন্তি অভিনেতা নায়করাজ রাজ্জাক আর নেই    ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলাকারীদের বিচারের দাবিতে বরিশালে বিক্ষোভ    ১৯ ইয়াবা ব্যবসায়ীকে ১০ বছরের স্বশ্রম কারাদন্ড    বরিশালে বিনামূল্যে চক্ষু চিকিৎসা ক্যাম্প    গৃহবধূকে নির্যাতনের পর তালাবদ্ধ করে রেখেছে পাষন্ড স্বামী    বরিশালে র‌্যাবের ভূয়া মেজর আটক    বিসিসিতে পশু কোরবানীর জন্য ১৭৪ স্থান নির্ধারণ

সাংবাদিক শিমুল হত্যায় মেয়র মিরু সাময়িক বরখাস্ত


সোমবার, ১৯ জুন ২০১৭, ০৪:৪২ অপরাহ্ণ, বাংলাপ্রেস ডটকম ডটবিডি

সাংবাদিক শিমুল হত্যায় মেয়র মিরু সাময়িক বরখাস্ত

ডেস্ক প্রতিবেদন: সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুরে সাংবাদিক শিমুল হত্যা মামলার প্রধান আসামি পৌরমেয়র ও জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক (বহিষ্কৃত) হালিমুল হক মিরু ও কাউন্সিলর রাজ্জাককে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে।

স্থানীয় সরকার বিভাগের উপ পরিচালক আবু নূর মো. শামসুদ্দিন বিষয়টি নিশ্চিত করে তিনি বলেন, শিমুল হত্যা মামলায় মেয়র মিরুর বিরুদ্ধে আনিত অভিযোগ ১৩ জুন আদালত আমলে নেন। এ সংক্রান্ত কাগজ আমাদের হাতে আসায় স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ের আদেশে আজ তাকে বরখাস্ত করা হয়েছে।

উল্লেখ্য, গত বৃহস্পতিবার শাহজাদপুর পৌরমেয়রের ছোট ভাই পিন্টু ও তার বাহিনী শাহজাদপুর সরকারি কলেজ ছাত্রলীগ সভাপতি বিজয় মাহমুদকে স্থানীয় সাব-রেজিস্ট্রি অফিসের সামনে থেকে উঠিয়ে নিয়ে মেয়রের বাড়িতে আটক করে বেধড়ক মারধর করে। এ খবর ছড়িয়ে পড়ায় বিকেলে এর প্রতিবাদে স্থানীয় ছাত্রলীগ কর্মী-সমর্থকেরা বিক্ষোভ করে। একপর্যায়ে বিক্ষুব্ধ কর্মী-সমর্থকেরা পৌরসভার মেয়র হালিমুল হক মিরুর মনিরামপুর মহল্লার বাসভবন ঘেরাও করে।

এ সময় বিক্ষোভকারীদের লক্ষ্য করে পৌরমেয়র হালিমুল হক মিরু তার শর্টগান থেকে গুলি ছুড়লে ঘটনাস্থলে পেশাগত দায়িত্ব পালনকালে দৈনিক সমকালের শাহজাদপুর প্রতিনিধি আব্দুল হাকিম শিমুল গুলিবিদ্ধ হন। প্রথমে গুরুতর আহত অবস্থায় তাকে স্থানীয় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানেও তার শারীরিক অবস্থার অবনতি ঘটলে বিকেলে বগুড়া শহিদ জিয়াউর রহমান মেডিক্যাল কলেজ অ্যান্ড হসপিটালে স্থানান্তর করা হয়। শুক্রবার উন্নত চিকিৎসার জন্য বগুড়া থেকে ঢাকা নেয়ার পথে সাংবাদিক আব্দুল হাকিম শিমুলের মৃত্যু হয়। এ ঘটনায় শিমুলের স্ত্রী নুরুনন্নাহার বেগম বাদী হয়ে মেয়র মিরু, তার ভাই মিন্টু ও উপজেলা আওয়ামী লীগ নেতা নাসিরসহ জ্ঞাত ১৮ ও অজ্ঞাত আরও প্রায় ২২ জনসহ ৪০ জনের বিরুদ্ধে হত্যা মামলা দায়ের করেন।

এর আগে গ্রেফতারকৃত আট আসামি হলেন মেয়র মিরু ছোট ভাই পাবনা জেলা জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দলের (জাসদ) সাধারণ সম্পাদক হাবিবুল হক মিন্টু, ছোট ভাই হাসিবুল হক পিন্টু, পৌর এলাকার ছয়আনি গ্রামের আওয়ামী লীগ নেতা কে এম নাসির উদ্দিন, বাড়াবিল গ্রামের আলমগীর হোসেন, নলুয়া গ্রামের আশরাফ ভূঁইয়া, নাজমুল খাঁ, শক্তিপুর গ্রামের জহির শেখ ও নলুয়া গ্রামের সাহেব আলী।

এ বিভাগের আরো সংবাদ

মন্তব্য করুন