শিরোনাম :

সিংড়ায় রাস্তার কার্পেটিং কাজের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করলেন আইসিটি প্রতিমন্ত্রী


রবিবার, ৫ নভেম্বর ২০১৭, ০৪:৪৫ অপরাহ্ণ, বাংলাপ্রেস ডটকম ডটবিডি

সিংড়ায় রাস্তার কার্পেটিং কাজের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করলেন আইসিটি প্রতিমন্ত্রী

সিংড়া (নাটোর) প্রতিনিধি: নাটোরের সিংড়া পৌরসভায় চলতি অর্থ বৎসরে টেন্ডারকৃত প্রকল্পসমূহের মধ্যে পৌর এলাকার ১২নং ওয়ার্ডে শৈলমারী হতে হাজীপুর পর্যন্ত কার্পেটিং রাস্তা নির্মাণ কাজের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেছেন, তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের প্রতিমন্ত্রী এ্যাড্ জুনাইদ আহমেদ পলক এমপি।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন, সিংড়া পৌরসভার মেয়র মো: জান্নাতুল ফেরদৌস, সাবেক শেরকোল ইউপির চেয়ারম্যান আদেশ আলী সরদার, জেলা পরিষদ সদস্য রায়হান কবির টিটু, ১২ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর নওশাদ আলী, যুবনেত্রী রুনা খাতুন প্রমূখ।

জানা যায়, স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তরের “তৃতীয় নগর পরিচালন ও অবকাঠামো উন্নতিকরণ (সেক্টর) প্রকল্প (টএওওচ-ওওও)” এর আওতায় টেন্ডারকৃত প্রকল্পসমূহের মধ্যে রয়েছে ২২টি সড়ক এবং ৯টি ড্রেন নির্মাণের কাজ, যা চলতি অর্থ বৎসরেই বাস্তবায়ন করা হবে। প্রায় ১২ কোটি ৬৬ লক্ষ টাকা ব্যয়ে ১৫.০৮ কিলোমিটার সড়ক ও ২.৯ কিলোমিটার ড্রেন নির্মাণের স্কীমসমূহের বাস্তবায়ন কাজ শেষ হলে যাতায়াত ব্যবস্থার ব্যাপক উন্নয়ন সাধিত হবে এবং মানুষের জীবনযাত্রার মান ও উন্নত হবে।

সিংড়া পৌরসভার মেয়র জনাব মো: জান্নাতুল ফেরদৌস বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ভিশন ২০২১ বাস্তবায়নের ক্ষেত্রে এলজিইডি’র টএওওচ-ওওও প্রকল্পটি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করছে। কারণ, শুধু অবকাঠামোগত উন্নয়নই এই প্রকল্পের একমাত্র লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য নয়। বরং প্রতিটি পৌরসভাতে সুসাশন প্রতিষ্ঠা করা, নিজস্ব আয়ের উৎসকে আরো সমৃদ্ধশালী করা, নারী ও দরিদ্র জনগোষ্ঠিকে পৌরসভার উন্নয়ন কাজে সম্পৃক্ত করা এবং সর্বোপরি নাগরিক সেবার মান বৃদ্ধি করা এই প্রকল্পের মুখ্য লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য। এই প্রকল্পসমূহ বাস্তবায়নের মধ্য দিয়ে সিংড়া পৌরবাসীর দীর্ঘদিনের ভোগান্তির অবসান হবে বলে তিনি জানান।

তথ্য ও প্রযুক্তি বিভাগের প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক এমপি বলেন,বর্তমান সরকারের সারাদেশে ব্যাপক উন্নয়ন কার্যক্রম চলমান রয়েছে। এরই অংশ হিসেবে রানীভবানী খ্যাত নাটোর জেলার ঐতিহাসিক চলনবিল অধ্যুষিত সিংড়া পৌরসভার জনসাধারণের শতভাগ নাগরিক সুবিধা নিশ্চিত করণের লক্ষ্যে ১৫.০৮ কিলোমিটার সড়ক ও ২.৯ কিলোমিটার ড্রেন নির্মাণের কাজ চলমান রয়েছে। যথাযথ সময়ে কাজ শেষ হবে বলে তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

এ বিভাগের আরো সংবাদ

মন্তব্য করুন