শিরোনাম :

জব্দ অস্ত্র থেকে তৈরি হলো হেডফোন


বৃহস্পতিবার, ১১ জানুয়ারি ২০১৮, ০১:৪৬ অপরাহ্ণ, বাংলাপ্রেস ডটকম ডটবিডি

জব্দ অস্ত্র থেকে তৈরি হলো হেডফোন

ডেস্ক প্রতিবেদন: শুরু হয়েছে ভোক্তা ইলেকট্রনিকস পণ্য প্রদর্শনের সবচেয়ে বড় অনুষ্ঠান সিইএস-এর এ বছরের আসর সিইএস ২০১৮। এই প্রদর্শনীতে নতুন এই হেডফোন উন্মোচন করেছে সুইডেনে ইয়েভো ল্যাবস।

হেডফোনগুলোর উপরে জড়ানো থাকা একটি ব্যান্ড আর এর চার্জিং কেইসটি হিউম্যানিয়াম নাম দেওয়া এক ধাতব পদার্থ দিয়ে বানানো হয়েছে।সুইডেনভিত্তিক প্রতিষ্ঠান হিউম্যানিয়াম মেটাল ইনিশিয়েটিভ জব্দ করা আগ্নেয়াস্ত্র থেকে এই ধাতব বানিয়েছে।

অনেক পণ্যের ভীড় থাকা বাজারে হেডফোনগুলোতে আলাদা বৈশিষ্ট্য আনতে এই ধারণা সহায়তা করবে বলে মত দিয়েছেন এক বিশেষজ্ঞ, খবর বিবিসি’র।

হিউম্যানিয়াম এই হেডফোনের দাম রাখা হয়েছে ৪৯৯ ডলার। দামটিকে ‘বেশি’ বলে স্বীকার করে নিয়েছেন ইয়েভো’র প্রধান নির্বাহী আন্দ্রিয়াস ভিউরাল। তবে, তিনি জানান এর অর্ধেকটাই চলে যাবে হিউম্যানিয়াম তৈরি ও বিতরণে কাজ করা সংস্থাটিতে। তিনি বলেন, “এটি বিশ্বের সবচেয়ে দামি পদার্থ কারণ মানুষের জীবনের উপর আপনি কোনো মূল্য নির্ধারণ করতে পারেন না।”

ভিউরাল আরও বলেন, কীভাবে এইউ ধাতব পদার্থকে কাজে লাগানো যায় তা বের করতে দুই বছর লেগেছে।প্রথম ধাপে দক্ষিণ আমেরিকার কর্তৃপক্ষগুলোর কাছ থেকে জব্দ করা অস্ত্রগুলো থেকে হিউম্যানিয়াম বানানো হয়।

তারবিহীন এই হেডফোনগুলো ব্লুটুথ-এর সঙ্গে এনএফএমআই (নিয়ার-ফিল্ড ম্যাগনেটিক টেকনোলজি) ব্যবহার করে কাজ করে।

হৃৎস্পন্দন ঠিক রাখতে সহায়তাকারী যন্ত্র আর শুনতে সহায়তাকারী যন্ত্রগুলোতে এনএফএমআই অনেক দিন ধরেই ব্যবহার করা হচ্ছে।

গ্যাজেটবিষয়ক রিভিউ প্রকাশকারী সাইট পকেট-লিন্ট’র প্রতিষ্ঠাতা স্টুয়ার্ট মাইলস বলেন, “আপনি দেখে থাকবেন বাজারে অনেক হেডফোন নির্মাতা প্রতিষ্ঠান আছে, সেখানে আলাদা কোনো বৈশিষ্ট্য তুলে ধরতে আপনি দেখবেন আরও নতুন নতুন বিষয় নিয়ে চেষ্টা করা হচ্ছে।”

“অ্যাপল যেভাবে এর লাল পণ্যগুলো আনে (এ থেকে হওয়া আয় বিশ্বব্যাপী এইচআইভি ভাইরাস আক্রান্তদের সহায়তা করতে ব্যবহৃত হয়), একই রকমভাবে ইয়েভো তাদের বিশ্বাস করা একটি ধারণা প্রদর্শন করছে।”

এ বিভাগের আরো সংবাদ

মন্তব্য করুন