শিরোনাম :

ডিজিটালাইজেশনের মহাসড়কে পিরোজপুর পল্লীবিদ্যুৎ সমিতি


বৃহস্পতিবার, ৮ মার্চ ২০১৮, ০৩:৪৫ অপরাহ্ণ, বাংলাপ্রেস ডটকম ডটবিডি

ডিজিটালাইজেশনের মহাসড়কে পিরোজপুর পল্লীবিদ্যুৎ সমিতি

ডেস্ক প্রতিবেদন: পিরোজপুর পল্লীবিদ্যুৎ সমিতি এখন ডিজিটালাইজেশনের মহাসড়কে। ২০০৯ সালের পর থেকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরকারের ডিজিটাল বাংলাদেশ বিনির্মাণে পিরোজপুর, বরগুনা এবং বাগেরহাটের ১১টি উপজেলা নিয়ে গঠিত পিরোজপুর পল্লীবিদ্যুৎ সমিতির ডিজিটাল কার্যক্রম এখন ব্যাপক ও বিস্তৃত।

পিরোজপুর পল্লীবিদ্যুৎ সমিতির নিজস্ব ওয়েবসাইট-এর মাধ্যমে ইন্টারনেট ব্যাবহার করে নতুন বিদ্যুৎ সংযোগের নিয়মাবলীসহ সমিতির সামগ্রিক বিষয়াবলী জানার সুযোগ পাচ্ছে। অনলাইনে নতুন বিদ্যুৎ সংযোগের আবেদন ইন্টারনেট ব্যবহারকারীগণ ঘরে বসে করতে পারছেন এবং অনেকেই ইউনিয়ন ডিজিটাল সেন্টারে এসে আবেদন করছে। বিলিং সফটওয়্যারের মাধ্যমে বিদ্যুৎ বিল সম্পূর্ণ নির্ভুল ও দ্রুততার সাথে তৈরি করে গ্রাহক প্রান্তে পৌঁছানো হচ্ছে। অনলাইনের মাধ্যমে সার্বক্ষণিক বিদ্যুৎ পরিস্থিতি আপগ্রেড করা হচ্ছে।

পল্লীবিদ্যুতের স্টোর ব্যবস্থাপনা অন-লাইনে করা হচ্ছে। অন-লাইনের মাধ্যমে সকল কর্মকর্তা কর্মচারীর বিভিন্ন তথ্য তথা পারসোনাল ম্যানেজমেন্ট ইনফরমেশন সিষ্টেম সফটওয়্যার বাস্তবায়ন করা হয়েছে।

পিরোজপুর পল্লীবিদ্যুৎ সমিতির ৪১৫ জন কর্মকর্তা কর্মচারীর সকল তথ্য এ সফটওয়্যারে সংরক্ষণ করা হয়েছে। সকল দপ্তরের সাথে অন-লাইনে পত্র যোগাযোগের কার্যক্রম বাস্তবায়িত হওয়ায় অর্থ শ্রম ও সময় সাশ্রয় হচ্ছে। দ্রুত বিদ্যুৎ সংযোগ প্রদানের ক্ষেত্রে অন-লাইনের মাধ্যমে আবেদন গ্রহণ ও সমীক্ষা সম্পাদন জামানত গ্রহণ স্পটেই বিদ্যুৎ সংযোগ প্রদানের কার্যক্রম ব্যাপকভাবে চলমান।

ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে বিভিন্ন কার্যক্রম গ্রহণের ফলে জবাবদিহিতা ও দাপ্তরিক কাজে স্বচ্ছতা নিশ্চিত করা হয়েছে। গ্রাহকদের সমস্যা সমাধান ও প্রতিষ্ঠানের বিভিন্ন তথ্য উপস্থাপনের জন্য ফেইসবুক পেজ তৈরি করা হয়েছে। এর ফলে গ্রাহকদের যেকোন সমস্যা আরও দ্রুততার সাথে সমাধান হচ্ছে। ইউনিয়ন ডিজিটাল সেন্টারের মাধ্যমে বিদ্যুৎ বিল গ্রহণ অচিরেই শুরু হতে যাচ্ছে। এর ফলে হাজার হাজার গ্রাহকের অর্থ, শ্রম ও সময় সাশ্রয় হচ্ছে।

সমিতির গ্রাহকদের মোবাইল এস এম এস এর মাধ্যমে বিদ্যুৎ বিলের পরিমান ও পরিশোধের তথ্য প্রদান করা হচ্ছে। টেলিটক রিচার্জ পয়েন্টের মাধ্যমে বিদ্যুৎ বিল গ্রহণ করা হচ্ছে ১১ উপজেলার ১৭৮টি টেলিটক রিটেইলার এর মাধ্যমে। এছাড়াও ওয়ান স্টপ সার্ভিস সহ বিভিন্ন ক্ষেত্রে ডিজিটালাইজড করা হয়েছে।

পিরোজপুর পল্লীবিদ্যুৎ সমিতির জেনারেল ম্যানেজার প্রকৌশলী শংকর কুমার কর বাসসকে জানান, “শেখ হাসিনার উদ্যোগ - ঘরে ঘরে বিদ্যুৎ” বাস্তবায়িত করতে পিরোজপুর পল্লীবিদ্যুৎ সমিতি নিরলস কাজ করে যাচ্ছে। ২০০৮ সালে পিরোজপুরের বিদ্যুৎ সুবিধাভোগী জনগণ ছিল ২১.৭৪%, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরকারের বিভিন্ন মুখী কর্মকান্ডে ২০১৭ সালে তা বৃদ্ধি পেয়ে ৭২.৫৯% এ পৌঁছেছে।

এ বিভাগের আরো সংবাদ

মন্তব্য করুন