শিরোনাম :

পৃথিবীর দূরতম নক্ষত্রের সন্ধান


বুধবার, ৪ এপ্রিল ২০১৮, ০৩:০৭ অপরাহ্ণ, বাংলাপ্রেস ডটকম ডটবিডি

পৃথিবীর দূরতম নক্ষত্রের সন্ধান

বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি ডেস্ক: হাজার তারার আলো থেকে অনেকটা দূরে। ব্রহ্মাণ্ডের এক প্রান্তে। খুব চেনা নয়, এমন একটা প্যাঁচানো ছায়াপথে একাকি এক তারা।

হিসেব কষে দেখা যাচ্ছে, সেখান থেকে পৃথিবীতে আলো আসতে সময় লাগছে পাক্কা ৯০০ কোটি বছর! অর্থাৎ, এই গ্রহ থেকে তার দূরত্ব ৯০০ কোটি আলোকবর্ষ। তাদের হাব্‌ল স্পেস টেলিস্কোপে সম্প্রতি এমনই এক বিচ্ছিন্ন নীলচে তারার ছবি ফুটে উঠেছে বলে দাবি করেছে নাসা। বলা হচ্ছে, এখনও পর্যন্ত আবিষ্কৃত এটিই পৃথিবী থেকে সব চেয়ে দূরের তারা। যার পোশাকি নাম, ‘ইকারাস’।

বিজ্ঞানীদের দাবি, এর আগে যে তারার অবস্থানকে দূরতম বলে মনে করা হত, ইকারাস তার চেয়েও ১০০ গুণ দূরে। এতখানি দূরত্ব যার, তার ছবি সাধারণত ফিকে হওয়ারই কথা। নাসা যদিও বলছে, তারা স্পষ্ট নীলচে আলো দেখেছে। আর এই ‘অঘটন’ সম্ভব হয়েছে হাব্‌ল স্পেস টেলিস্কোপের অসামান্য দৃষ্টিশক্তির কারণেই। মহাকাশে পৃথিবীর মাধ্যাকর্ষণের আয়ত্তে অথচ ভাসমান প্রথম এবং একমাত্র দূরবীক্ষণ যন্ত্র এটাই।

বিজ্ঞানীরা বলছে, ব্রহ্মাণ্ডের জন্ম হয়েছিল আজ থেকে ১ হাজার ৩৭০ কোটি বছর আগে। সেই হিসেবে সদ্য-অবিষ্কৃত এই তারাটি ব্রহ্মাণ্ডের বয়সের তিন-চতুর্থাংশ সময় আগেকার। ৯০০ কোটি বছর আগে আলো পাঠিয়েছিল ইকারাস। তাই মহাবিশ্বে এখনও সে টিকে আছে কি না, তার খতিয়ান নেই কারও কাছেই।

সূত্র: আনন্দবাজার

এ বিভাগের আরো সংবাদ

মন্তব্য করুন