শিরোনাম :

মানুষের চলাচলে সাহায্য করবে ‘সুপার স্যুট’


শুক্রবার, ৬ জুলাই ২০১৮, ০২:১১ অপরাহ্ণ, বাংলাপ্রেস ডটকম ডটবিডি

মানুষের চলাচলে সাহায্য করবে ‘সুপার স্যুট’

বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি: আধুনিক বিজ্ঞানের যুগে মানুষ প্রযুক্তি দিয়ে ঘেরা। মানব শরীরের প্রায় প্রতিটি অঙ্গে এখন প্রযুক্তি পণ্য দেখা যায়। স্মার্ট ঘড়ি থেকে স্মার্ট জুতা সবই এখন বাস্তব। সেই বাস্তবতাকে আরও এক ধাপ এগিয়ে দেবে ‘সুপার স্যুট’। বিশেষ এই পোশাকের মাধ্যমে চলাচলে দুর্বল ব্যক্তিরাও হাটাচলা করতে পারবেন। সবথেকে বেশি উপকৃত হবেন বয়স্ক ব্যক্তিরা।

জাতিসংঘের এক তথ্য মতে, ২০৫০ সাল নাগাদ বিশ্বের ৬০ বছর বা তাঁর থেকে বেশি বয়স্ক মানুষের সংখ্যা হবে আজকের থেকে দ্বিগুণ। আর এমন বয়স্ক মানুষদের কথা চিন্তা করেই সিসমিক নামক একটি প্রতিষ্ঠান তৈরি করেছে ‘সুপার স্যুট’।

অলাভজনক গবেষণা প্রতিষ্ঠান এসআরআই ইন্টারন্যাশনালের গবেষণায় ডিজাইন করা হয় এই পোশাকটির। মানব দেহে পরিধানযোগ্য এই পোশাকটি চলাচলের জন্য মাংসপেশীকে শক্তি জোগাবে। পোশাকটিতে মানব দেহের মতো ‘পেশী’ সংযুক্ত আছে। তবে তা ইলেকট্রিক পেশী। মানবদেহের মতোই এই ইলেকট্রিক পেশীগুলো মানবদেহের চলাচল নিশ্চিত করবে।

বিশেষ এই পোশাকটিতে থাকবে একটি কম্পিউটার এবং অনেকগুলো সেন্সর। এসব সেন্সর পোশাকটির চলাচল নিয়ন্ত্রণ করবে। আর কম্পিউটারটিতে থাকা একটি সফটওয়্যার স্যুটটিকে নির্দেশনা দিবে যে কখন তার চলাচল করতে হবে। আর এটিকে কর্মক্ষম করতে এতে আছে মোটর, ব্যাটারি এবং কন্ট্রোল প্যানেল।

সিসমিকের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা রিচ ম্যাহোনী বিবিসি’কে জানান, “এখন সময়ে যে পণ্যটি মানুষকে সাহায্য করতে পারে তা হলো যা বিভিন্ন ধরণের ওয়াকার অর্থ্যাত চলাচলের পণ্য। আরেকটি উপায় হলো নিজেদের কার্যকারিতা কমিয়ে দিয়ে ঘরে বসে থাকা। বেশিরভাগ লোক এই কাজটিই করে কারণ তারা কৃত্তিম বস্তুর সাহায্য নিতে চায় না। তবে যারা আগ্রহী তাদের জন্য খুব উপকারী হতে পারে এই পণ্যটি”।

চলতি বছরের শেষ নাগাদ যুক্তরাষ্ট্র, জাপান ও যুক্তরাজ্যের বাজারে পরীক্ষামূলকভাবে এই পোশাকটি বাজারজাত করা হবে বলে জানায় সিসমিক।

সূত্রঃ বিবিসি

এ বিভাগের আরো সংবাদ

মন্তব্য করুন