শিরোনাম :

শুরু হল সূর্য ছোঁয়ার অপেক্ষা


রবিবার, ১২ আগস্ট ২০১৮, ০৮:২৯ অপরাহ্ণ, বাংলাপ্রেস ডটকম ডটবিডি

সূর্য ছুতে চায় মার্কিন গবেষণা প্রতিষ্ঠান নাসা

বিজ্ঞান: শুরু হল সূর্য ছোঁয়ার অপেক্ষা। ফ্লোরিডায় মার্কিন গবেষণা নাসা সংস্থার কেপ কানাভেরালে তখন রাত ৩টা ৩১ মিনিট। বাংলাদেশ সময় দুপুর ১টা ৩৪ মিনিট। ঐতিহাসিক মিশনের সাক্ষী থাকল গোটা দুনিয়া। সূর্য রহস্যের সমাধানে রওনা দিল স্পেসক্র্যাফ্ট পাৰ্কার সোলার প্রোব। মিশনের নাম "টাচ দা সান"।

মহাকাশ বিজ্ঞানের জগতে প্রথমবার সূর্য অভিযানের উদ্দেশে রওনা হল কোনও স্পেসক্র্যাফ্ট। সূর্যের সবথেকে কাছে পৌঁছবে এই মহাকাশযান। তুলে আনবে সৃষ্টির আদি রহস্য। সূর্যের প্রখর তাপ ও রশ্মি থেকে বাঁচতে বিশেষ ভাবে বানানো হয়েছে পার্কার সোলার মহাকাশযান। মহাকাশে সূর্য থেকে এই মহাকাশযান ৬১ লাখ ২০ হাজার কিলোমিটার দূরে থেকে তথ্য সংগ্রহ করবে। যেখানে তাপমাত্রা থাকবে ১৩০০ ডিগ্রি সেন্টিগ্রেড। এই মহাকাশযানের গতিবেগ ১৯০ কিলোমিটার প্রতি সেকেন্ড।

সূর্য থেকে কী কী তথ্য সংগ্রহ করবে পার্কার সোলার প্রোব?

সাত বছর ধরে সূর্যকে ২৪বার প্রদক্ষিণ করবে সোলার পার্ক। এটি ডেলটা ফোর হেভি রকেট।

এই মহাকাশযান সূর্যের কোরোনা স্তর বা সৌরবায়ু পর্যবেক্ষণ করবে। এই স্তর থেকেই সূর্যের বিভিন্ন প্রক্রিয়া নিয়ন্ত্রিত হয়।

১৯৫৮ সালে প্রথম সূর্য অভিযানের আইডিয়া দেন মহাকাশ পদার্থ বিজ্ঞানী পার্কার ইউজেন। তাঁর নামেই এই মহাকাশযানের নাম হয়েছে।

এ বিভাগের আরো সংবাদ

মন্তব্য করুন