শিরোনাম :

ভূগর্ভস্থ পানি সাশ্রয়ী প্রযুক্তিতে ধানের চারা রোপন


সোমবার, ২২ জানুয়ারি ২০১৮, ০১:১৭ অপরাহ্ণ, বাংলাপ্রেস ডটকম ডটবিডি

ভূগর্ভস্থ পানি সাশ্রয়ী প্রযুক্তিতে ধানের চারা রোপন

শামীম আহমেদ, বরিশাল: ভূগর্ভস্থ পানি সাশ্রয়ে গত বোরো মৌসুমে আধুনিক প্রযুক্তি ব্যবহার করে ধানের চারা রোপন করায় অধিক ফসল উৎপাদন করেছেন বরিশালের তিন উপজেলার কৃষকরা। ফলে আধুনিক প্রযুক্তির ওপর ঝুঁকে পড়ছেন।

বরিশাল সদর উপাজেলার এয়ারপোর্ট থানার রায়পাশা কড়াপুর ইউনিয়নের সোলনা এলাকার ব্লকে দেখা গেছে পানি সাশ্রয়ী প্রকল্পের আওতায় কৃষকরা ধানের চারা মেশিন দিয়ে জমিতে রোপনে ব্যস্ত সময় কাটাচ্ছেন।

এলাকার কৃষক আজাহার বেপারী, আলমগীর হোসেন, বেলাল মিয়া জানান, গত বছর এ প্রযুক্তি ব্যবহার করে তারা প্রতি ২০ শতক জমিতে ৩২ মণ করে ধান উৎপাদন করেছেন। অতীতে প্রচলিত পদ্ধতিতে তারা পেয়েছেন ২০ মন ধান। প্রযুক্তিগুলি লাগসই এবং যুগোপোযোগী। যা ব্যবহার করে শুধু অধিক ফলনই নয়, উৎপাদন খরচও অনেক কমে গেছে।

প্রকল্পের বরিশাল বিভাগের দায়িত্বরত তথ্য সংগ্রহকারী কর্মকর্তা (পল্লী উন্নয়ন একাডেমি (বগুড়া) মো. জাহিদুর রহমান বলেন, গত বোরো মৌসুমে প্রকল্প এলাকায় এডব্লিউডি (অল্টারনেট ওয়েট অ্যান্ড ড্রায়িং) অর্থাৎ পর্যায়ক্রমে ভিজানো এবং শুকানো পদ্ধতিতে জমিতে সেচ প্রদান, রেইজড বেড/বেড-নালা পদ্ধতিতে চাষাবাদ এবং এসআরআই (সিস্টেম অফ রাইচ ইন্টেনশিফিকেশন) পানি সাশ্রয়ী আধুনিক প্রযুক্তিগুলি ব্যবহার করে প্রচলিত পদ্ধতির চেয়ে ফলন বৃদ্ধি হয়েছে গড়ে ৩০% এবং পানি সাশ্রয় হয়েছে গড়ে ৪০%।

কৃষকদের সকল প্রযুক্তির বিষয়ে অবহিত করে থাকেন। চলতি বোরো মৌসুমে বরিশাল জেলায় ৩০ একর জমিতে বাইসট্রান্স প্লান্টার যন্ত্রের সাহয্যে অল্প বয়সী বীজ রোপণ করা হয়েছে।

কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতর জানিয়েছে, বর্তমানে বাংলাদেশের ৩১টি জেলার অন্তর্গত ১১৫টি সাইটে (উপ-প্রকল্প এলাকা) এবং সাতটি মাদার ট্রায়েল এলাকায় এ প্রকল্প বাস্তবায়িত হচ্ছে। যা ক্রমান্বয়ে বৃদ্ধি পেয়ে ৪০টি জেলার অন্তর্গত ২০০টি সাইটে উপ-প্রকল্প এলাকায় বাস্তবায়িত হবে। আধুনিক পানি সাশ্রয়ী প্রযুক্তির সম্প্রসারণ ও পানি ব্যবস্থাপনার মাধ্যমে ফসলের উৎপাদন বৃদ্ধি, পরিবেশ ও জলবায়ু পরিবর্তনের ঝুঁকি মোকাবেলা করাই প্রকল্পটির মূল উদ্দেশ্য। প্রকল্পটি আধুনিক পানি সাশ্রয়ী প্রযুক্তি যথা-এডাব্লিউডি অর্থাৎ পর্যায়ক্রমে ভিজানো এবং শুকানো পদ্ধতিতে জমিতে সেচ প্রদান, রেইজড বেড (বেড-নালা পদ্ধতিতে চাষাবাদ) পদ্ধতিতে চাষাবাদ, এসআরআই (সিস্টেম অফ রাইচ ইন্টেনশিফিকেশন/কম বয়সী চারা রোপন) পদ্ধতিতে ধানের চারা রোপন এবং ট্রাইকো-কম্পোস্ট উৎপাদন এবং ব্যবহার প্রযুক্তিসমুহ উপ-প্রকল্প এলাকা ও মাদার ট্রায়েল গুলিতে বাস্তবায়ন করে যাচ্ছে।

সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা জানান, বছরব্যাপী ফসল উৎপাদনের জন্য সেচ অপরিহার্য। মোট ব্যবহৃত পানির ৯৭ ভাগ সেচ কার্যে ব্যবহার হয়। ভূগর্ভস্থ পানির তুলনায় উপরিভাগের পানি সেচের জন্য অধিক উপযোগী হলেও শুস্ক মৌসুমে ভূ-উপরিস্থ পানির প্রাপ্তা/পর্যাপ্ততা না থাকায় দেশের ৭৮ ভাগ সেচ ভূগর্ভস্থ পানির উপর নির্ভরশীল। তাই সেচ কার্য পরিচালনায় প্রতিবছর গভীর ও অগভীর নলকূপের মাধ্যমে প্রচুর পরিমাণে ভূগর্ভস্থ পানি উত্তোলন করা হচ্ছে। প্রচলিত সেচ ব্যবস্থাপনায় বাংলাদেশে প্রতি কেজি ধান উৎপাদনে প্রায় তিন থেকে চার হাজার লিটার সেচ পানি প্রয়োজন। অতিমাত্রায় ভূগর্ভস্থ পানি উত্তোলনের কারণে ভূগর্ভস্থ পানিস্তরের ক্রমাগত নিন্মগামীতা পরিলক্ষিত হচ্ছে। ফলশ্রুতিতে একদিকে যেমন পরিবেশের ভারসাম্য নষ্ট হচ্ছে, তেমনি বেড়ে যাচ্ছে ভূগর্ভস্থ পানিতে আর্সেনিকের সংমিশ্রণ। মাটির জৈব উৎপাদান ও পুষ্ঠিমান কমে যাওয়ার পাশাপাশি মাটি হারাচ্ছে তার গুণগতমান। এ সকল সমস্যাসমুহ মোকাবেলায় ভূগর্ভস্থ পানির ব্যবহার কমানো, মাটির গুণগত মান রক্ষা, ফসলের উৎপাদন বাড়ানো, উৎপাদন ব্যয় কমাতে রেইজড বেড প্রযুক্তি পদ্ধতিতে ফসল চাষে ৪২ ভাগ সেচ পানি সাশ্রয় হয়। ধানের ফলন ২০ ভাগ পর্যন্ত বৃদ্ধিসহ ১৮ থেকে ২০ ভাগ ইউরিয়া সার কম লাগে। একবার বেড তৈরী করা হলে স্থায়ী বেডে বিনা চাষে পরবর্তী অনেকদিন ধরে ফসল ফলানো যায়।

প্রকল্প পরিচালক আব্দুল্লাহ আল মামুন জানান, আধুনিক প্রযুক্তির বিষয়ে কৃষকদের সচেতনতা বৃদ্ধি ও উদ্বুদ্ধকরণে কৃষকের জমিতে প্রদর্শনী স্থাপনের পাশাপাশি ফার্মারস ফিল্ড স্কুল (প্রশিক্ষণ), মাঠ দিবস, উদ্বুদ্ধকরণ ভ্রমণ বাস্তবায়ন করা হয়েছে। যা চলমান রয়েছে।

তিনি আরো জানান, দেশের জনসংখ্যা বৃদ্ধির সাথে সাথে কৃষি জমি হ্রাস পাচ্ছে। একইভাবে গ্রাম অঞ্চলে শিক্ষার হার বৃদ্ধির ফলে বেকার শিক্ষিত যুবক শ্রম সাধ্য কৃষি কাজ ছেড়ে পরিবহন, শিল্প কারখানাসহ অন্যান্য পেশায় স্থানান্তর হওয়ায় কৃষি শ্রমিকের সংকট দিন দিন প্রকট হচ্ছে। তাই বলতে পারি এই প্রযুক্তি ব্যবহার করলে পানি, অর্থ ও পরিবেশ রক্ষা পাবে। একই সাথ অধিক ফসলও হচ্ছে।

 

এ বিভাগের আরো সংবাদ

মন্তব্য করুন