শিরোনাম :

আইপিএল জয় করে রাতে ফিরছেন মুস্তাফিজ


সোমবার, ৩০ মে ২০১৬, ০৪:১৫ অপরাহ্ণ, বাংলাপ্রেস ডটকম ডটবিডি

আইপিএল জয় করে রাতে ফিরছেন মুস্তাফিজ

নিজস্ব প্রতিবেদক: ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগের (আইপিএল) ফাইনালে রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোরকে হারিয়ে সানরাইজার্স হায়দরাবাদ হয়ে ট্রফি জয় করে আজ রাতে ঢাকা ফিরছেন বাংলাদেশের তরুণ বাঁহাতি পেসার কাটার মাস্টার মুস্তাফিজুর রহমান।

সোমবার রাত সাড়ে ৯টায় হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমান বন্দরে পা রাখার কথা রয়েছে তার।

বিসিবির একটি বিশ্বস্ত সূত্র মুস্তাফিজুর রহমানের ঢাকায় আসার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন ।

রবিবার রাতে টানটান উত্তেজনার ফাইনালে রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স বেঙ্গালুরুকে ৮ রানে হারিয়ে প্রথমবারের মতো এই আসরের শিরোপা জিতেছে দলটি। একই রাতে দারুণ এক ইতিহাস গড়েছেন হায়দবাদের হয়ে খেলা বাংলাদেশের তরুণ পেসার মুস্তাফিজুর রহমান। ক্যারিয়ারের প্রথম আইপিএলেই ‘সেরা উদীয়মান খেলোয়াড়ের পুরস্কার জিতে নিয়েছেন এই বোলিং বিস্ময়।

আইপিএলের নয় বছরের ইতিহাসে প্রথম বিদেশি ক্রিকেটার হিসেবে এই পদক জয়ের ইতিহাস গড়লেন বাংলাদেশের কাটার মাস্টার।

আসরজুড়ে হায়দরাবাদের সাফল্যের অন্যতম কারিগর ছিলেন বাংলাদেশের এই বোলিং সেনসেশন। একদিকে টি২০ ক্রিকেটের মতো ফরম্যাটে কম রান দেওয়ার বিরল ক্ষমতা, অন্যদিকে অফ কাটার ও নিখুঁত ইয়র্কারের সমন্বয়ে অসাধারণ বোলিং বৈচিত্র্যে বিশ্বসেরা ব্যাটসম্যানদের বোকা বানানোর পারদর্শীতা; আইপিএলের শুরু থেকেই মুস্তাফিজ ছিলেন পাদপ্রদীপের আলোয়। চারদিক ভূয়সী প্রশংসা চলছিল তাকে ঘিরে। তাই আসরের সেরা উদীয়মান খেলোয়াড় নির্বাচনের ভোটাভুটিতে ছিল মুস্তাফিজের নামও। শেষ পর্যন্ত ভক্তদের রায়ে বিপুল ভোটে বিজয়ী হয়েছেন তিনি।

মোট ৮৩.২ শতাংশ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন মুস্তাফিজ। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স বেঙ্গালুরুর খেলোয়াড় লোকেশ রাহুল পেয়েছেন ৬.৩ শতাংশ ভোট।

অনলাইন ভোটের মাধ্যমে নির্বাচিত এই পদক জয়ের লড়াইয়ে আরও যারা ছিলেন তারা হলেন- জাসপ্রিত বুমরা, মুরুগান অশ্বিন, শিভিল কৌশিক, ক্রুনাল পান্ডে, বারিন্দার স্রান, রিশব পন্ট এবং অস্ট্রেলিয়ার কেন রিচার্ডসন ও অ্যাডাম জাম্পা। মুস্তাফিজ সবাইকে টপকে জিতে নিয়েছেন টি২০ ক্রিকেটে বিশ্বের সবচেয়ে বড়, দীর্ঘস্থায়ী ও আকর্ষণীয় আসরের সেরা উদীয়মান খেলোয়াড়ের পুরস্কারটি। ফাইনাল শেষে তার হাতে তুলে দেওয়া হয়েছে এর পদক ও প্রাইজমানি।

আইপিএলের যে কয়েকজন বিদেশি ক্রিকেটার বল হাতে আলো ছড়িয়েছেন তাদের মধ্যে অন্যতম মুস্তাফিজ। ১৬ ম্যাচে তুলে নিয়েছেন ১৭ উইকেট।

মুস্তাফিজের ইকোনমি রেট ৬.৯০; যা ১০ ওভারের বেশি বল করা বোলারদের মধ্যে সবচেয়ে কম।

আইপিএলের ফাইনালেও ক্রিস গেইলের ঝড়ো ব্যাটিংয়ে হায়দরাবাদের বোলারদের যখন দিশেহারা অবস্থা, তখন রানের গতি থামানোর জন্য মুস্তাফিজের হাতেই বল তুলে দিয়েছিলেন ওয়ার্নার। গেইল-ঝড়ে প্রথম পাঁচ ওভারেই ব্যাঙ্গালোর জমা করেছিল ৫৫ রান। ষষ্ঠ ওভারে বল করতে এসে মুস্তাফিজ দিয়েছিলেন মাত্র চার রান।

নিজের দ্বিতীয় ওভারে দুর্দান্ত ফর্মে থাকা কোহলির সামনে পড়ে একটি চার ও একটি ছয় হজম করতে হলেও ইনিংসের শেষ পর্যায়ে শেন ওয়াটসনকে সাজঘরে ফিরিয়ে হায়দরাবাদের জয় নিশ্চিত করেছেন মুস্তাফিজ।

এদিকে রোববার আইপিএলের ফাইনালে রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোরকে হারিয়ে প্রথমবারের মতো শিরোপা জয়ের পর মুস্তাফিজের উজ্জ্বল ভবিষ্যৎই কামনা করেছেন সানরাইজার্স হায়দরাবাদের অধিনায়ক ওয়ার্নার।

আইপিএল জুড়েই মুস্তাফিজ ছিলেন ওয়ার্নারের তুরুপের তাস। ভুবনেশ্বর কুমার আর মুস্তাফিজের দুর্দান্ত বোলিং জুটিই যে হায়দরাবাদের শিরোপা জয়ের পেছনে মুখ্য ভূমিকা রেখেছে, তা অস্বীকার করার মতো মানুষ হয়তো কমই পাওয়া যাবে।

অধিনায়ক ওয়ার্নারও প্রশংসায় ভাসিয়েছেন এ দুই পেসারকে। আর মুস্তাফিজকে শুভকামনা জানিয়ে তিনি বলেছেন, ‘মুস্তাফিজ বাংলাদেশের জন্য খুবই প্রতিশ্রুতিশীল খেলোয়াড়। ভুবনেশ্বরের সঙ্গে সে যে রকম অসাধারণ ক্রিকেট খেলেছে, তাতে তাকে কৃতিত্ব দিতেই হবে। আশা করছি, সে সুস্থ থাকবে আর ভবিষ্যতে আরো দুর্দান্ত হয়ে উঠবে।’

ওয়ার্নারের এই কথাগুলো যেন সত্যিই বাস্তবে রূপ নেয়, তা খুব করেই চাইবেন বাংলাদেশের ক্রিকেটপ্রেমীরা।

এমকে

এ বিভাগের আরো সংবাদ

মন্তব্য করুন