শিরোনাম :
   জাগো বাংলাতে সাংবাদিকতায় চাকরির সুযোগ    ইরানকে নিয়ে সমালোচনার কড়া জবাব দিলেন হাসান রুহানি    রোহিঙ্গা সংকট: নিরাপত্তা পরিষদকে দ্রুত পদক্ষেপ নেওয়ার আহ্বান    সু চিকে ‘যুদ্ধাপরাধী’ হিসেবে ফৌজদারি আদালতের কাঠগড়ায় দাঁড় করানোর সুপারিশ    আজকের রাশিফল: ২১ সেপ্টেম্বর বৃহস্পতিবার, ২০১৭    নিজেদের মাঠে বেটিসের কাছে হেরে গেল রিয়াল মাদ্রিদ    মিয়ানমারের ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা উচিত: জাতিসংঘের মানবাধিকার বিষয়ক প্রধান    রোহিঙ্গাদের সহায়তায় ২৬২ কোটি টাকা দেবে যুক্তরাষ্ট্র    রোহিঙ্গা হত্যার প্রতিবাদে বরিশালে ধ্রুবতারার মানববন্ধন অনুষ্ঠিত    সাপাহারে বন্যায় ক্ষতিগ্রস্থ রাস্তাগুলো  দ্রুত সংস্কারের দাবী এলাকাবাসীর 
ঐতিহাসিক হারে ছিন্নভিন্ন অস্ট্রেলিয়া

বহুতর ভবনের মতো ভেঙে পড়েছে তাদের ব্যাটিং লাইনআপ!


বুধবার, ৩০ আগস্ট ২০১৭, ০৪:০৬ অপরাহ্ণ, বাংলাপ্রেস ডটকম ডটবিডি

বহুতর ভবনের মতো ভেঙে পড়েছে তাদের  ব্যাটিং লাইনআপ!

ক্রীড়া ডেস্ক : বহুতল একটি ভবন ভেঙে পড়ছে হুড়মুড়িয়ে। মুহূর্তের মধ্যেই সেটি মিশে গেল মাটিতে। আজ চতুর্থ দিনে অস্ট্রেলিয়ার দ্বিতীয় ইনিংসের ব্যাটিং বিপর্যয়ের কথা বলতে গিয়ে এমন একটি ছবিই ব্যবহার করেছে অস্ট্রেলিয়ার একটি ক্রীড়াবিষয়ক ওয়েবসাইট।

ক্যাপশনে লিখে দিয়েছে, ‘এমনটাই হচ্ছে এখন’। মিরপুরে টেস্ট সিরিজের প্রথম ম্যাচে সত্যিই হুড়মুড়িয়ে ভেঙে পড়েছে অস্ট্রেলিয়ার শক্তিশালী ব্যাটিং লাইনআপ। প্রায় হেরে যাওয়া ম্যাচটাতে অসাধারণ বোলিং নৈপুণ্য দেখিয়ে বাংলাদেশ পেয়েছে ২০ রানের ইতিহাসগড়া জয়।

টেস্টে বাংলাদেশের বিপক্ষে প্রথম এই হারের পর এখন অস্ট্রেলিয়ার গণমাধ্যমগুলোতে তীব্র সমালোচনা চলছে স্টিভেন স্মিথ, ডেভিড ওয়ার্নারদের। কিছু কিছু সংবাদ শিরোনাম দেখে হয়তো লজ্জায় মুখ লুকানোরই ইচ্ছে হবে অস্ট্রেলিয়ার তারকা ক্রিকেটারদের।

অস্ট্রেলিয়ার অন্যতম প্রধান পত্রিকা সিডনি মর্নিং হেরাল্ডে শিরোনাম করা হয়েছে, ‘ঐতিহাসিক ব্যর্থতায় অপমানিত হলেন অসি ক্রিকেটাররা’। বাংলাদেশের জন্য যে জয়টা ঐতিহাসিক সাফল্য, সেটা তো অস্ট্রেলিয়ার জন্য ঐতিহাসিক ব্যর্থতাই বটে! প্রতিবেদনটিতে অস্ট্রেলিয়ার চতুর্থ দিনের ব্যাটিং নৈপুণ্যকে বর্ণনা করা হয়েছে ‘ভৌতিক কাহিনী’ হিসেবে।

অস্ট্রেলিয়ার আরেকটি শীর্ষ পত্রিকা দি অস্ট্রেলিয়ানের সংবাদ শিরোনামও ছিল প্রায় একই রকম, ‘ঐতিহাসিক হারে ছিন্নভিন্ন অস্ট্রেলিয়া’। সেখানেও স্মিথ-ম্যাক্সওয়েলদের ব্যাটিং ব্যর্থতার প্রসঙ্গ টেনে লজ্জা দেওয়া হয়েছে অসি ক্রিকেটারদের। সঙ্গে জুড়ে দেওয়া হয়েছে ‘উড়ন্ত’ সাকিবের ছবি। যাঁর দুর্দান্ত ঘূর্ণিতেই দিশেহারা হয়ে যেতে হয়েছে অস্ট্রেলিয়াকে।

হেরাল্ড সান, ডেইলি টেলিগ্রাফের মতো পত্রিকাগুলোতেও অস্ট্রেলিয়ার এই হারকে বর্ণনা করা হয়েছে লজ্জাজনক হিসেবে। সেই সঙ্গে ভূয়সী প্রশংসাও কুড়িয়েছেন সাকিব-তামিমরা।

অস্ট্রেলিয়ার দল নির্বাচন নিয়েও কাটাছেঁড়া চলছে দেশটির গণমাধ্যমগুলোতে। উপমহাদেশে খেলতে এসে অস্ট্রেলিয়ার সাম্প্রতিক ব্যর্থতার পরিসংখ্যানগুলোও বারবার উঠে আসছে সেখানে। হবে না-ই বা কেন? এশিয়ায় সর্বশেষ ১৩টি ম্যাচের মধ্যে অস্ট্রেলিয়ার জয় যে মাত্র একটিতে!

এ বিভাগের আরো সংবাদ

মন্তব্য করুন