শিরোনাম :

রংপুরকে হারিয়ে প্রথম জয়ের মুখ দেখলো রাজশাহী কিংস


শনিবার, ১১ নভেম্বর ২০১৭, ০৪:৩৩ অপরাহ্ণ, বাংলাপ্রেস ডটকম ডটবিডি

রংপুরকে হারিয়ে প্রথম জয়ের মুখ দেখলো রাজশাহী কিংস

বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের (বিপিএল) ঢাকায় দিনের প্রথম ম্যাচে রংপুর রাইডার্সের মুখোমুখি হয় রাজশাহী কিংস। রংপুরকে ৮ উইকেটে হারিয়ে এবারের আসরে প্রথম জয়ের মুখ দেখলো কিংসরা।

মিরপুরে শের-ই-বাংলা ক্রিকেট স্টেডিয়ামে শনিবার (১১ নভেম্বর) দুপুর একটায় মাঠে নামে দু’দল। ড্যারেন স্যামির অনুপস্থিতিতে রাজশাহীকে নেতৃত্ব দেন আইকন মুশফিকুর রহিম। ম্যাচে টস জিতে ব্যাটিংয়ে নামা মাশরাফি বিন মর্তুজার রংপুর রাইডার্স নির্ধারিত ওভারে ৫ উইকেট হারিয়ে তোলে ১৩৪ রান। জবাবে, ১৬.৪ ওভারে ২ উইকেট হারিয়ে জয়ের বন্দরে পৌঁছে রাজশাহী।

রাজশাহীর ওপেনার লেন্ডল সিমন্স আর মুমিনুল হক দলকে জয়ের দিকে টেনে নিয়ে যান। মুমিনুল প্রথম বাংলাদেশি ব্যাটসম্যান হিসেবে এবারের আসরে হাফ-সেঞ্চুরি হাঁকান। ৪৪ বলে ৪টি চার আর ৩টি ছক্কায় মুমিনুল করেন অফরাজিত ৬৩ রান। আরেক ওপেনার সিমন্স দলীয় ১২২ রানের মাথায় রানআউট হয়ে বিদায় নেন। তার আগে ৫০ বলে ৪টি চার আর ১টি ছক্কায় করেন ৫৩ রান। তিন নম্বরে নেমে ম্যালকম ওয়ালার (৪) দ্রুতই বিদায় নেন। রনি তালুকদার ৪ বলে ১০ রান করে অপরাজিত থাকেন।

রংপুরের দলপতি মাশরাফি ৪ ওভারে ২৭ রান দিয়ে কোনো উইকেট পাননি। থিসারা পেরেরা একটি উইকেট পান। এছাড়া, লাসিথ মালিঙ্গা, আবদুর রাজ্জাক, নাজমুল ইসলাম, রবি বোপারা, জিয়াউর রহমান কোনো উইকেটের দেখা পাননি।

এর আগে রংপুরের ওপেনিংয়ে নামেন জনসন চার্লস এবং অ্যাডাম লিথ। দু’জনই বিদায় নেন খুব দ্রুত। চার্লস ২ আর লিথ ৪ রান করে সাজঘরে ফেরেন। তিন নম্বরে নামা মোহাম্মদ মিঠুন ১৫ বলে করেন ১৮ রান। ৪ রান করে আউট হন থিসারা পেরেরা। রংপুরের বিদেশি তারকা রবি বোপারা ৫১ বলে তিনটি চার আর দুটি ছক্কায় করেন অপরাজিত ৫৪ রান। শাহরিয়ার নাফিসের ব্যাট থেকে আসে ২৩ রান। তার ৩১ বলের ইনিংসে মাত্র দুটি বাউন্ডারির মার ছিল। জিয়াউর রহমান ১০বলে ১১ রান করে অপরাজিত থাকেন।

রাজশাহীর স্পিনার মেহেদি হাসান মিরাজ ৪ ওভারে ১৯ রান খরচায় তুলে নেন একটি উইকেট। ফরহাদ রেজা ৪ ওভারে ২৮ রান খরচায় নেন ২টি উইকেট। পাকিস্তানি পেসার মোহাম্মদ সামি ৪ ওভারে ১৯ রানের বিনিময়ে উইকেট পাননি। কেরসিক উইলিয়ামস ৪ ওভারে ৩৪ রান খরচ করে নেন একটি উইকেট। জেমস ফ্রাঙ্কলিন ৩ ওভারে ১৪ রান দিয়ে নেন ১টি উইকেট। নিহাদুজ্জামান এক ওভার বল করে ৯ রান দিয়ে কোনো উইকেট পাননি।

এই ম্যাচে নামার আগে সিলেট পর্বে রংপুর ও রাজশাহী আরও একবার মুখোমুখি হয়েছিল। আর সে ম্যাচে দুর্দান্ত খেলে ছয় উইকেটের জয় তুলে নেয় মাশরাফি-নাফিস-বোপারারা। কিন্তু চিটাগং ভাইকিংসের বিপক্ষে নিজেদের শেষ ম্যাচে হেরে বসে মাশরাফিরা। অন্যদিকে সিলেটে দুই ম্যাচ খেলে কোনোটিতেই জয় পায়নি রাজশাহী। টুর্নামেন্টে সাত দলের মধ্যে ড্যারেন স্যামি-মুশফিকদের অবস্থান ছিল সবার শেষে।

রংপুর রাইডার্স: জনসন চার্লস, অ্যাডাম লিথ, জিয়াউর রহমান, মোহাম্মদ মিঠুন, রবি বোপারা, শাহরিয়ার নাফিস, থিসারা পেরেরা, মাশরাফি বিন মর্তুজা (অধিনায়ক), আব্দুর রাজ্জাক, লাসিথ মালিঙ্গা, নাজমুল ইসলাম।

রাজশাহী কিংস: লেন্ডল সিমন্স, মুমিনুল হক, রনি তালুকদার, মুশফিকুর রহিম (অধিনায়ক), নিহাদুজ্জামান, জেমস ফ্রাঙ্কলিন, ম্যালকম ওয়ালার, ফরহাদ রেজা, মেহেদি হাসান মিরাজ, কেসরিক উইলিয়ামস, মোহাম্মদ সামি।

এ বিভাগের আরো সংবাদ

মন্তব্য করুন