শিরোনাম :

ফিরছেন নারিন, পোলার্ড-ব্রাভো


বুধবার, ২৫ জুলাই ২০১৮, ১০:১৬ পূর্বাহ্ণ, বাংলাপ্রেস ডটকম ডটবিডি

ফিরছেন নারিন, পোলার্ড-ব্রাভো

ক্রীড়া: দীর্ঘদিন হলো ওয়েস্ট ইন্ডিজ ক্রিকেট দল তাদের সেরা কিছু সীমিত ওভারের খেলোয়াড়কে জাতীয় দলে পাচ্ছে না। অবশেষে ২০১৯ বিশ্বকাপকে সামনে রেখে ওয়েস্ট ইন্ডিজ দলে ফেরার সুযোগ করে দেয়া হচ্ছে সুনীল নারিন, কিয়েরন পোলার্ড এবং ব্রাভো ভাইয়েদের।


ক্রিকেট ওয়েস্ট ইন্ডিজ (সিডব্লুআই) সিদ্ধান্ত নিয়েছে তাদের আগামী মৌসুমের ঘরোয়া ৫০ ওভারের টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্টটি ২০১৯ সালের ফেব্রুয়ারির বদলে এই বছরের অক্টোবরে অনুষ্ঠিত হবে। ফলে বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তের টি-টোয়েন্টি লিগের সাথে এই টুর্নামেন্টের সময়ের সংঘর্ষ হবে না।

এই সিদ্ধান্ত নিয়ে সিডব্লুআই আলোচিত খেলোয়াড়দের বলছে, তারা যেনো এই ‘সুপার-৫০ কাপ’ খেলে এবং জাতীয় দলের জন্য নিজেদের বিবেচিত করতে পারে।

বোর্ডের প্রধান নির্বাহী জনি গ্রেভ এই সিদ্ধান্ত জানিয়ে বলেছেন, ‘পোলার্ড, ব্রাভো ভাইয়েরা এবং নারিনের প্রতি আমাদের বার্তা হলো্তএসো এবং সুপার-৫০ কাপ খেলো। যাতে করে কোর্টনি ব্রাউন (নির্বাচক কমিটির চেয়ারম্যান) সব খেলোয়াড়কে বাছাইয়ের জন্য পেতে পারে। এটা শুধু আমাদের মান বাড়াবে, তাই নয়। এতে আমাদের নির্বাচক চ্যানেলের চিন্তা বাড়বে এবং তারা দেখতে পাবে যে তরুণ খেলোয়াড়রা ডোয়াইন ব্রাভো, নারিনের বিপক্ষে কিভাবে রান করে এবং ড্যারেন ব্রাভো ও পোলার্ডকে কিভাবে আউট করে।’

নির্বাচক কমিটির চেয়ারম্যান ব্রাউনও এই সিদ্ধান্তে খুশী হয়ে বলেছেন, এটা তাদের বিশ্বকাপ প্রস্তুতির জন্য দারুণ একটা ব্যাপার হবে, ‘এটা (সুপার-৫০) আমাদের বিশ্বকাপ প্রস্তুতির জন্য খুব প্রয়োজনীয় একটা টুর্নামেন্ট। লোকেরা চায় তাদের (আলোচিত খেলোয়াড়দের) নাম আমরা বিবেচনায় আনি। সে জন্য তাদের সুপার-৫০ টুর্নামেন্ট খেলতে হবে এবং পারফরম করতে হবে।’

অবশ্য বোডের্র এই পদক্ষেপ নিশ্চিত করছে না যে, এই চার খেলোয়াড় এখনই সব মেনে নিয়ে সুপার-৫০ টুর্নামেন্ট খেলতে চলে আসবেন। এর আগে বিশ্বকাপ বাছাই পর্ব না খেলে এই চার খেলোয়াড় পাকিস্তান সুপার লিগ খেলার সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন। এরপর তারা ওয়েস্ট ইন্ডিজের স্টেডিয়ামগুলোর উন্নয়নের জন্য আয়োজিত চ্যারিটি ম্যাচেও অংশ নেননি।

তারপরও ওয়েস্ট ইন্ডিজ আশা ছাড়ছে না। ইতোমধ্যে তারা বেশ কিছু ছাড় দেওয়ায় দলে ফিরে পেয়েছে ক্রিস গেইল, আন্দ্রে রাসেল ও মারলন স্যামুয়েলকে। এখন তারা এই বাকী চার ক্রিকেটারের সাথেও আলোচনা চালাচ্ছে।

এই ঘরোয়া ক্রিকেটের সূচি পরিবর্তনের ফলে এই চার ক্রিকেটার একটা বৃহত্তর মানসিকতায় খেলায় অংশ নেবেন বলেই তারা আশা করছেন। নতুন এই সূচির ফলে ওয়েস্ট ইন্ডিজের এই ৫০ ওভারের টুর্নামেন্টটির সাথে একমাত্র সংঘর্ষ হবে আফগানিস্তান প্রিমিয়ার লিগের।

গ্রেভ বলেছেন, এই একটা লিগকে কোনোভাবেই এড়াতে পারেননি তারা। বিশেষ করে তারা খুশী বিপিএল, পিএসএল ও বিগ ব্যাশকে এড়াতে পেরে, ‘এখন আমাদের ঘরোয়া টুর্নামেন্টটি কেবল আফগানিস্তান লিগের সাথে সংঘর্ষ করছে। আপনি আসলে যে সময়ই খেলা আয়োজন করেন, কোনো না কোনো লিগের সাথে সংঘর্ষ হবে। আমরা একটা ভালো সময় করতে পারছি খেলাটা। যাতে পিএসএল আর বিগ ব্যাশের সাথে সমস্যা হয় না। আমাদের বিসিবির সাথে আলোচনা হয়েছে। বিপিএল নভেম্বরের বদলে এবার জানুয়ারিতে হচ্ছে। ফলে ওখানেও কোনো সমস্যা হচ্ছে না।’

এ বিভাগের আরো সংবাদ

মন্তব্য করুন