শিরোনাম :

'তাদেরই জিততে হবে'


বৃহস্পতিবার, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ০৮:০৪ অপরাহ্ণ, বাংলাপ্রেস ডটকম ডটবিডি

'তাদেরই জিততে হবে'

ক্রীড়া: মাঠে তারা পেরে উঠুক বা না উঠুক তাতে কিছু যায় আসে না। তাদের সুষ্ঠু ম্যাচ পরিচালনার কথাও তারা আমলে নেন না। যে উপায়ে হোক তাদেরই জিততে হবে। ভারতীয় ভক্তদের উদ্দেশ্যে এমনই সব কথাগুলো বলছিলেন টাইগার ভক্তরা। তাই দেশটির গণমাধ্যমে প্রকাশিত সংবাদ নিয়ে ক্ষোভ উগড়ে দিলেন।

দেশটির একটু জনপ্রিয় গণমাধ্যমে বলা হয়েছে, লড়াই নেই একটুও। আছে শুধু আত্মসমর্পণ। এশিয়া কাপে ভারত ও বাংলাদেশের ম্যাচ মানেই যেন হয়ে ওঠে আত্মসমর্পণের কাহিনি। সেই পর্ব কাটিয়ে দুর্দান্ত ফর্মে থাকা শুক্রবার আবু ধাবিতে এশিয়া কাপের ফাইনালে মাশরফি মর্তুজার দল নতুন ইতিহাস লিখতে পারে কিনা, সে দিকে চোখ থাকছে ক্রিকেটমহলের।

যে ভাবে চোট-আঘাতের প্রতিকূলতা টপকে বুধবার পাকিস্তানকে হারিয়েছে বাংলার বাঘেরা, তাতে সমর্থকরা কাপ জয়ের স্বপ্নই দেখছেন। সুপার ফোরে ভারতের কাছে হারের পর ঘুরে দাঁড়িয়েছেন মুস্তাফিজুররা। আফগানিস্তান ও পাকিস্তানকে পরপর হারিয়ে ফাইনালের টিকিট ছিনিয়ে নিয়েছে বাংলাদেশ।

কাজটা মোটেই সহজ ছিল না। প্রতিযোগিতার শুরুতেই দল থেকে ছিটকে গিয়েছিলেন অভিজ্ঞ ওপেনার তামিম ইকবাল। আফগানিস্থানের বিরুদ্ধে ইঞ্জেকশন নিয়ে খেললেও সুপার ফোরে পাকিস্তানের বিরুদ্ধে চোটের জন্য খেলতেই পারেননি দেশের সেরা অলরাউন্ডার শাকিব আল হাসান। আঙুলে অস্ত্রোপচার হবে তাঁর। তামিমের মতো ফাইনালে শাকিবকেও পাচ্ছে না বাংলাদেশ। চোট রয়েছে অধিনায়কেরও। পাকিস্তানের বিরুদ্ধে ব্যথা কমানোর ওষুধ খেয়ে মাঠে নেমেছিলেন মাশরফি।

যাঁর ৯৯ রানের দুরন্ত ইনিংস গোড়াতেই তিন উইকেট হারানোর ধাক্কা সামলে বাংলাদেশকে লড়াইয়ের রসদ জোগায়, সেই মুশফিকুর কিন্তু উইকেটকিপিং করতে পারেননি ২০ ওভারের পর। ফাইনালেও তাঁকে নিয়ে থাকছে সংশয়। প্রচণ্ড গরমও বাধা হয়ে উঠছে।

এবারের এশিয়া কাপে বাংলাদেশ অবশ্য চোট-আঘাতের সমস্যাকে হেলায় হারিয়েছে। পাকিস্তানকে হারিয়ে দারুণ উদ্দীপ্ত দেখাচ্ছে সবুজ জার্সিধারীদের। ফাইনালে তাই রোহিত শর্মার দলের কাজ সহজ হবে না কোনও ভাবেই। তবে ধারে-ভারে-ঐতিহ্যে-পারফরম্যান্সে-পরিসংখ্যানে ভারতই ফেভারিট। আর সুপার ফোরেও তো বাংলাদেশকে হারিয়েছে টিম ইন্ডিয়া।

এ বিভাগের আরো সংবাদ

মন্তব্য করুন