শিরোনাম :

প্রীতি জিনতার ক্রিকেটবাজি


মঙ্গলবার, ৯ অক্টোবর ২০১৮, ১২:০৩ অপরাহ্ণ, বাংলাপ্রেস ডটকম ডটবিডি

প্রীতি জিনতার ক্রিকেটবাজি

যখন থেকে টি-টুয়েন্টি ক্রিকেটের প্রচলন শুরু হয়েছে, তখন থেকেই এই অঙ্গনে অর্থের মোহ বৃদ্ধি পেয়েছে ব্যাপক হারে। বিশেষ করে বাজিকরদের কারণে। বাজিকরদের কারণে নেতিবাচক প্রভাব পড়ছে পুরো ক্রিকেট দুনিয়ায়। লাগামহীন হয়ে যাচ্ছে ক্রিকেট ‘বাজি’।

আইপিএল শুরু হওয়ার পর থেকেই ক্রিকেটে কলঙ্কজনক অধ্যায় রচিত হয় । ২০১৩ সালে আইপিএলের ইতিহাসে সব চেয়ে কলঙ্কজনক অধ্যায়ের ঘটনা ঘটে। স্পট ফিক্সিং কাণ্ডে বেশ কিছু ক্রিকেটার ধরা পড়েছিলেন। এতে নিষিদ্ধ করা হয়েছে ক্রিকেটারদের। ফ্র্যাঞ্চাইজিদেরও নির্বাসনে যেতে হয়েছে।

যেহেতু কোন ভাবেই এই বেটিংকে নিয়ন্ত্রণ করা যাচ্ছে না তাই আইন করে তা বৈধ করে দেয়া উচিত বলে মনে করেন আইপিএলের দল কিংস ইলেভেন পাঞ্জাবের ফ্রাঞ্চাইজি মালিক প্রীতি জিনতা। বিষয়টি নিয়ে এখন ক্রিকেট মহলে আলোচনার ঝড়।

সম্প্রতি ভারতীয় এক সংবাদমাধ্যমে প্রীতি জিনতা বলেন, ‘সরকার যদি ‘বাজি ’আইন করে চালু করে, তাহলে সরকারের কোষাগারে অনেক টাকা জমা পড়বে। আবার প্রত্যেককে গড়াপেটা থেকে সরিয়ে রাখা সম্ভব নয়। কতজনকে আপনি আটকে রাখতে পারবেন? এই জন্যই আমি বলেছিলেন, র‌্যানডম লাই ডিটেক্টর টেস্টের বন্দোবস্থ করতে।’

প্রীতি বলেন, ‘বিসিসিআইয়ের উচিত লাই ডিটেক্টর টেস্টকে তাঁদের নিয়মের অংশ করে নেওয়া। তাহলে প্রত্যেক ক্রিকেটারের কাছেই ধরা পড়ে যাওয়ার আশঙ্কা কাজ করবে। এটাই হওয়া উচিত।’

এ বিভাগের আরো সংবাদ

মন্তব্য করুন