শিরোনাম :

তাসকিনের দিকে আলাদা দৃষ্টি


শুক্রবার, ২৩ আগস্ট ২০১৯, ১০:২০ পূর্বাহ্ণ, বাংলাপ্রেস ডটকম ডটবিডি

তাসকিনের দিকে আলাদা দৃষ্টি

ক্রীড়া: বাংলাদেশে যে কোনো পেস বোলিং কোচ এসেই দীর্ঘদেহী পেসার খোঁজেন। এর আগে কোর্টনি ওয়ালশ দীর্ঘদেহী পেসারের প্রয়োজনীয়তা অনুভব করেছিলেন। জাতীয় দলের আশপাশে থাকা পেসারদের মধ্যে তাসকিন আহমেদ ও ইবাদত হোসেন যথেষ্ট লম্বা। বাংলাদেশ দলের নতুন পেস বোলিং কোচ চার্ল ল্যাঙ্গেভেল্ট এসেই তাসকিনের দিকে আলাদা দৃষ্টি দিয়েছেন। আগেরদিন পরিচয়পর্ব শেষ করে শিষ্যদের নিয়ে কাজ করার সময় পাননি। বৃহস্পতিবার পেসারদের কিছু কৌশল দেখালেন।

আগেরদিন সংবাদ সম্মেলনে তাসকিনকে নিয়ে আশার কথা শুনিয়েছিলেন ল্যাঙ্গেভেল্ট। তিনি বলেন, ‘বাউন্স দিতে হলে যথেষ্ট উচ্চতার প্রয়োজন হয়। উচ্চতায় তাসকিন অন্যদের চেয়ে এগিয়ে। যদি সে ইনজুরিতে না পড়ে এবং খেলার সুযোগ পায়, তাহলে অতিরিক্ত বাউন্স দিতে পারবে।’ কাল জিম সেশন শেষ হওয়ার পর মিরপুর শেরেবাংলা জাতীয় স্টেডিয়ামে মোস্তাফিজুর রহমান, মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন, তাসকিন, এবাদত-ফরহাদ রেজাদের নিয়ে অনেকটা সময় কাজ করেন প্রোটিয়া পেস বোলিং কোচ। সেখানে তাসকিন ও ইবাদতকে বেশি সময় নিয়ে বলের সিম পজিশন, গ্রিপ করার কৌশল ধরিয়ে দিয়েছেন। তাসকিন বলেন, ‘খুব বেশি কিছু হয়নি, আমার কিছু কথা শুনেছেন কোচ। বোলিংয়ে কিছু কৌশল নিয়ে কথা বলেছেন।’

দ্বিতীয়দিন ল্যাঙ্গেভেল্ট পুরোদমে কাজে নেমে পড়েছেন। আর প্রধান কোচ রাসেল ডমিঙ্গো পর্যবেক্ষণ করেছেন সবাইকে। বিশেষ করে মুশফিকুর রহিম ও মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের সঙ্গে গল্প করে অনেকটা সময় কাটিয়েছেন তিনি। আগেরদিন কোচ বলেছিলেন, ক্রিকেটারদের সঙ্গে ভালো সম্পর্ক তৈরি করা হবে তার প্রধান কাজ। তারই অংশ হিসেবে খেলোয়াড়দের মানসিকতা বোঝার চেষ্টা করছেন নতুন কোচ। টানা চারদিনের কন্ডিশনিং ক্যাম্প হওয়ার পর আজ ক্রিকেটাররা বিশ্রামে থাকবেন। এরপর স্কিল ক্যাম্প শুরু হলে ক্রিকেটারদের সমস্যা নিয়ে কাজ করবেন কোচরা।

এ বিভাগের আরো সংবাদ

মন্তব্য করুন