ব্রেকিং নিউজ
বাংলাপ্রেস-এর ফেসবুক পেজটি হ্যাকড হওয়ায় আমরা আন্তরিকভাবে দুঃখিত। পেজটি উদ্ধারের চেষ্টা চলছে।
শিরোনাম :

মুশফিকের সাথে আরো তিনজন


শুক্রবার, ৮ মে ২০২০, ১০:৫১ পূর্বাহ্ণ, বাংলাপ্রেস ডটকম ডটবিডি

মুশফিকের সাথে আরো তিনজন

ঢাকা: ২০১৩ শ্রীলঙ্কার গলে বাংলাদেশ টেস্ট ক্রিকেট নতুন ইতিহাস রচনা করেছিলেন মুশফিকুর রহীম। দেশের হয়ে হাঁকিয়েছিলেন অমূল্য প্রথম ডাবল সেঞ্চুরি। তবে মানুষের জীবনের চেয়ে বেশি নয়। মহামরি করোনা ভাইরাসের ক্ষতিগ্রস্ত মানুষের জন্য ঐতিহাসিক ব্যাটটি নিলামে তাই প্রমান করলেন তিনি। এখান থেকে যত আয় হবে তার বড় একটা অংশই চলে যাবে বিপর্যস্ত মানুষের সেবায়।

দেশের মানুষের এমন বিপদে বসে নেই অনেক ক্রিকেটাই। ব্যক্তিগত ভাবেই নিজেদের সামর্থ্যের মধ্যে যতটুকু সম্ভব করেছেন। এরই মধ্যে জাতীয় দলের তরুণ ক্রিকেটার মোসাদ্দেক অন্যতম একজন।

সমাজের হতদরিদ্র মানুষ মানুষ ছাড়াও তৃতীয় লিঙ্গের পাশে দাড়িয়েছেন তরুন এই ক্রিকেটার। এবার মুশফিকের সঙ্গে তার আয়াল্যান্ডে ত্রিদেশীয় সিরেজে শিরোপা জয়ী ইনিংস খেলা ব্যাটটি নিলামে তুলছেন। এই নিলামে উঠছে তরুণ নাঈম শেখের ভারতের বিপক্ষে ৮১ রানের ইনিংস খেলা ব্যাটটিও। বড়দের দেখে বসে নেই অনুর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপ জয়ী দলের অধিনায়ক আকবর আলীও। ভারতের বিপক্ষে সেই ফাইনাল ম্যাচের জার্সি ও গ্লাভস তুলছেন নিলামে।

অনুষ্ঠানিক ভাবে এই নিলাম শুরু হবে শনিবার। মুশফিকের জন্মদিনে শুরু হওয়া এই নিলাম চলবে ৫দিন। নিশ্চিত করেছেন নিলাম পরিচালনাকারী প্রতিষ্ঠান নিপকোর কনসালটেন্ট বর্ষন কবির। তিনি বলেন, ‘শনিবার মুশফিকের জন্মদিনেই এই নিলাম অনুষ্ঠাানিক ভাবে শুরু হবে। চলবে পাঁচদিন। নিলামে আরো তিন ক্রিকেটারের ব্যাট, জার্সি ও গ্লাভস থাকবে। এছাড়াও একজন সমর্থকের সংগ্রহে থাকা ২০১১ বিশ্বকাপের একটি ব্যাটও উঠবে এই নিলামে।’

অন্যদিকে নিলাম নিয়ে বিস্তারিত জানাতে গিয়ে বর্ষন কবির বলেন, ‘শনিবার রাত ১০ টায় অনলাইনে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে নিলাম অনুষ্ঠানের যাত্রা শুরু হবে। নিপকো ইভেন্টম্যানেজম্যান্ট ছাড়াও আমাদের এই নিলামে পাটর্নার হিসেবে থাকছে ব্র্যাক। এছাড়াও অনলাইনে নিলামের পুরো আয়োজনটি করবে পিকাবো। ৫ দিন ব্যাপী করার মূল উদ্দেশ্য হলো যত সময় হবে ততোই ব্যাট ও নিলামে উঠা জিনিস গুলোর দাম বাড়বে। বিশেষ করে মুশফিকের ঐতিহাসিক ব্যাটটি আলাদা গুরুত্ব বহন করে। এই ব্যাটেই তিনি বাংলাদেশের হয়ে টেস্টে প্রথম ডাবল সেঞ্চুরির ইতিহাস রচনা করেছিলেন। আমরা মনে করি এখানে যত বেশি টাকা আসবে ততোই দূর্গত মানুষের জন্য ব্যয় করা যাবে।’

এছড়াও জানা গেছে নিলাম থেকে আসা অর্থের একটি অংশ দেয়া হবে ব্র্যাককে। আর বাকি টাকা ক্রিকেটারদের তহবিলে চলে যাবে। সেখান থেকে তারা ব্যক্তিগত উদ্যোগে দাড়াবেন আরো মানুষের পাশে। বর্ষন বলেন, ‘নিলামের আয় থেকে একটি অংশ ব্র্যাককে দিতে সম্মত হয়েছেন চার ক্রিকেটারই। বাকি টাকা নিজেদের উদ্যেগে খরচ করবেন দূর্গত মানুষের জন্য। মুশফিক তার নিজের শহর বগুড়ার মানুষের জন্য এই অর্থ দান করবেন বলেই জানিয়েছেন।’

শনিবার ৩৩ এ পা রাখবেন জাতীয় দলের ব্যাটিংয়ে ভরসা মুশফিক। নিলামের জন্য তাই দিনটির গুরুত্ব অন্যরকম।

এছাড়াও নিলামে মোসাদ্দেকের ব্যাটেরও আছে ইতিহাস। গেল বছর আয়ারল্যান্ডে প্রথম কোন টুর্নামেন্টে ওয়েস্ট ইন্ডিজকে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ান হয়েছিল বাংলাদেশ। ২৭ বলে ৫২ রানের এক ঝড়ো ইনিংস খেলেছিলেন মোসাদ্দেক। তার ব্যাটেই ওয়ানডেতে নয়া এক ইতিহাস গড়ে টাইগাররা। নাঈম ও আকবরের ব্যাট, জার্সি ও গ্লাভস নিয়ে বর্ষন বলেন, ‘আকরের হাত ধরেই প্রথম আমরা অনুর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপ চ্যাম্পিয়ান হই। তাও ভারততে হারিয়ে। সেই ম্যাচে অধিনায়ক আকবরের জার্সি ও গ্লাভসের ঐতিহাসিক গুরুত্বও কম নয়। আর ভারতের বিপক্ষে তাদের মাটিতে ৮১ রান করেছিলেন নাঈম। যা এমন একটি দলের বিপক্ষে দারুণ এক লড়াইয়ের প্রতিক। এই সব ঐতিহাসিক স্মৃতিচিহ্নের কারণেই আমরা আশা করছি অবশ্যই নিলাম থেকে মানুষের সেবায় অনেক বেশি অর্থ উঠে আসবে।’

এ বিভাগের আরো সংবাদ

মন্তব্য করুন