শিরোনাম :
   মিয়ানমারে বিলাসবহুল হোটেলে ব্যাপক আগুন, নিহত ১    ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের নতুন প্রক্টর ড. এ কে এম গোলাম রব্বানী    রাবির ভর্তি পরীক্ষাকে কেন্দ্র করে মেস মালিকদের চরম স্বেচ্ছাচারিতা    বর্ষিয়ান সাংবাদিক বাটুলের হীরক জন্ম জয়ন্তি    ঢাবি’র ‘ঘ’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা আগামীকাল    দেশব্যাপী ভ্রাম্যমান লাইব্রেরি কার্যক্রম শুরু করতে যাচ্ছে গণগ্রন্থাগার     বস্তিবাসীদের জন্য ১০ হাজার ফ্ল্যাট নির্মাণ করবে সরকার    বেড়িবাঁধ পূনঃনির্মাণ কাজ উদ্বোধন:  দুঃখ ঘুচবে শাহ্পরীর দ্বীপের অর্ধলাখ মানুষের    ফেসবুকে আপত্তিকর মন্তব্য:  রেহাই পেলেন দুই আ. লীগ নেতা    নদীগর্ভে বিলীনের পথে নবনির্মিত সাইক্লোন সেল্টার

ধর্ষক তুফানের স্ত্রী আশাসহ গ্রেপ্তার আরো ৩


সোমবার, ৩১ জুলাই ২০১৭, ১১:৩৭ পূর্বাহ্ণ, বাংলাপ্রেস ডটকম ডটবিডি

ধর্ষক তুফানের স্ত্রী আশাসহ গ্রেপ্তার আরো ৩

ডেস্ক প্রতিবেদন: বগুড়ায় শিক্ষার্থীকে ধর্ষণ ও মাসহ তার মাথা ন্যাড়া করে দেয়ার ঘটনায় দায়ের করা মামলায় তুফানের স্ত্রী আশাসহ তিন সহযোগীকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

রোববার রাতে সাভারের হেমায়েতপুর এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়।

গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন তুফানের স্ত্রী আশা (২০), তুফানের গাড়িচালক জিতু (২৩) ও তুফানের সহযোগী মুন্না (২৫)।এনিয়ে এ ঘটনায় দায়ের হওয়া দু’মামলায় অভিযুক্ত ১০ জনের মধ্যে ৯ জনকেই গ্রেপ্তার করা হলো।

শিমুল নামের অপর এক সহযোগী এখনো পলাতক রয়েছেন।বগুড়ার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আরিফুর রহেমান মন্ডল ৩ আসামীকে গ্রেপ্তারের বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, পুলিশ সদরদপ্তরর ও সাভার থানা পুলিশের সহযোগিতায় রোববার রাতে পালিয়ে থাকা আশা, জিতু ও মুন্নাকে ঢাকার সাভার থেকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।সোমবার সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে বিস্তারিত জানানো হবে।

ঢাকা জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার খোরশেদ আলম বলেন, বগুড়া থেকে একটি প্রাইভেটকারে করে তুফানের স্ত্রী, গাড়িচালক ও তুফানের সহযোগী ঢাকার উদ্দেশে রওনা দেয়।পরে রাত সাড়ে ১১টার দিকে তারা সাভারের হেমায়েতপুর এলাকায় এসে পৌঁছালে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে সাভার মডেল থানা পুলিশের একটি দল ঢাকা-আরিচা মহাসড়কে অভিযান চালিয়ে সিলভার কালারের একটি প্রাইভেটকার আটক করে।এসময় ওই গাড়ির ভেতরে তল্লাশি চালিয়ে তুফানের স্ত্রী ও সহযোগীদের গ্রেপ্তার করা হয়।

এর আগে, বগুড়া গোয়েন্দা পুলিশের (ডিবি) একটি দল রোববার সন্ধ্যায় পাবনা শহর থেকে তুফানের স্ত্রী আশা খাতুনের বড় বোন রুমকি ও তুফানের শাশুড়ি রুমা খাতুনকে গ্রেপ্তার করে।বগুড়ার এক কিশোরীকে কলেজে ভর্তি করানোর নামে গেলো ১৭ জুলাই তাকে নিজ বাড়িতে কৌশলে ডেকে নিয়ে ধর্ষণের অভিযোগ ওঠে তুফান সরকারের বিরুদ্ধে।তুফানের স্ত্রী এ ঘটনা জানতে পেরে সংরক্ষিত আসনের স্থানীয় ওয়ার্ড কমিশনার মর্জিয়া হাসান রুমকির মাধ্যমে শুক্রবার শালিস সভা বসিয়ে নির্যাতিতা ও তার মায়ের চুল কেটে দেয়।পরে নাপিত ডেকে তাদের ন্যাড়া করিয়ে এলাকা ছাড়া করার হুমকি দেয়। স্থানীয়রা তাদের হাসপাতালে ভর্তি করালে সে রাতেই তুফানসহ তার তিন সহযোগীকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।২৯ জুলাই শনিবার তুফানসহ ১০ জনের বিরুদ্ধে মামলা করেন নির্যাতিতা কিশোরী।

এ বিভাগের আরো সংবাদ

মন্তব্য করুন