শিরোনাম :

প্রতিবন্ধী সন্তান জন্মগ্রহণ করায় স্ত্রী-পুত্রের খবর নিচ্ছে না স্বামী


সোমবার, ৩০ অক্টোবর ২০১৭, ০৪:১৭ অপরাহ্ণ, বাংলাপ্রেস ডটকম ডটবিডি

প্রতিবন্ধী সন্তান জন্মগ্রহণ করায় স্ত্রী-পুত্রের খবর নিচ্ছে না স্বামী

বরিশাল প্রতিনিধি: প্রতিবন্ধী পুত্র সন্তান জন্মগ্রহণ করায় গত চার বছর ধরে স্ত্রী ও সংসারের খোঁজখবর নেয়া বন্ধ করে দিয়েছেন স্বামী মাসুম হাওলাদার। উপায়অন্তুর না পেয়ে একমাত্র কন্যা ও প্রতিবন্ধী পুত্র সন্তানকে নিয়ে বাবার বাড়িতে আশ্রয় নিয়েছেন অসহায় গৃহবধূ নুপুর বেগম।

ঘটনাটি জেলার বানারীপাড়া উপজেলার সলিয়াবাকপুর ইউনিয়নের নরত্তোমপুর গ্রামের।

গৃহবধূ নুপুর বেগমের মা আকলিমা বেগম জানান, তার কন্যা নুপুরকে দীর্ঘদিন পূর্বে সামাজিকভাবে পাশ্ববর্তী মাসুম হাওলাদারের সাথে বিয়ে দেয়া হয়। তাদের সংসারে প্রথমে একটি কন্যা সন্তান ও পরবর্তীতে গত সাত বছর পূর্বে শারিরিক প্রতিবন্ধকতা নিয়ে একটি পুত্র সন্তান জন্মগ্রহণ করে।

নুপুর বেগম জানান, বিয়ের পর থেকে কন্যা সন্তান জন্মগ্রহণের পরেও তাদের দাম্পত্য জীবন সুখেই কাটছিলো। এরইমধ্যে প্রতিবন্ধী পুত্র সন্তান জন্মগ্রহণের পর থেকেই তাদের দাম্পত্য জীবনে অশান্তি নেমে আসে। ক্রমেই সংসার ও ছেলে-মেয়েদের খোঁজখবর নেয়া বন্ধ করে দেয় তার স্বামী মাসুম হাওলাদার। চরম অশান্তির মাঝেও প্রতিবন্ধী ছেলে রাকিব হাওলাদারকে নিয়ে তিনবছর স্বামীর সংসারে ছিলেন অসহায় নুপুর বেগম।

একপর্যায়ে উপায়অন্তুর না পেয়ে গত চারবছর ধরে একমাত্র মেয়ে ও প্রতিবন্ধী পুত্রকে নিয়ে নরত্তোমপুর গ্রামের মায়ের কাছে আশ্রয় নিয়েছেন নুপুর। সেই থেকে অদ্যবর্ধি মায়ের কাছেই ছেলে-মেয়েকে নিয়ে আশ্রিত রয়েছেন নুপুর বেগম। শারিরিক প্রতিবন্ধী রাকিব বর্তমানে সাত বছরে পা দিলেও এখনও সে নিজের ইচ্ছায় বিছানা থেকে উঠতে ও বসতে পারেনা।

রাকিবের নানি আকলিমা বেগম বলেন, তার নাতীর জন্য প্রতিবন্ধী ভাতা ও একটি হুইল চেয়ারের জন্য স্থানীয় জনপ্রতিনিধি থেকে শুরু করে সংশ্লিষ্ট অফিসে একাধিকবার ধর্না দিয়েও নিরাশ হয়েছি।

তিনি আরও বলেন, আমরা গরীব ও অসহায় বলে কেউই আমাদের কথা কর্ণপাত না করে শুধুই আশ্বাস দিয়ে যাচ্ছেন।

এ বিভাগের আরো সংবাদ

মন্তব্য করুন