শিরোনাম :

ব্যবস্থাপত্র অনুযায়ী ওষুধ না দেয়ায় মৃত্যু শয্যায় অন্তঃস্বত্তা গৃহবধূ


বুধবার, ১ নভেম্বর ২০১৭, ০৪:৩০ অপরাহ্ণ, বাংলাপ্রেস ডটকম ডটবিডি

ব্যবস্থাপত্র অনুযায়ী ওষুধ না দেয়ায় মৃত্যু শয্যায় অন্তঃস্বত্তা গৃহবধূ

বরিশাল প্রতিনিধি: চিকিৎসকের ব্যবস্থাপত্র পাল্টে দোকানীর দেয়া ওষুধ খেয়ে বুধবার সকালে মুমূর্ষ অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন অন্তঃস্বত্তা গৃহবধূ সাথী বেগম। ঘটনাটি জেলার আগৈলঝাড়া উপজেলার বাগধা ইউনিয়নের চাঁদত্রিশিরা গ্রামের।

ওই গ্রামের জালাল বখতিয়ার জানান, তার মেয়ে ও প্রবাসী জাহাঙ্গীর আলমের সাত মাসের অন্তঃস্বত্তা স্ত্রী সাথী বেগম সোমবার শারিরীক অসুস্থ্যতা নিয়ে স্থানীয় পয়সারহাট আদর্শ জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসা নিতে যায়। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক ডাঃ অনন্যা দাস সাথীর পরীক্ষা নিরীক্ষা শেষে ব্যবস্থাপত্র লিখে দেন।

ওই ব্যবস্থাপত্র নিয়ে তিনি (জালাল) জেনারেল হাসপাতাল সংলগ্ন মিজান বক্তিয়ারের ওষুধের দোকান থেকে ওষুধ ক্রয় করে তার মেয়েকে সেবন করায়। ওষুধ সেবনে সাথীর শারিরীক অবস্থার আরও অবনতি হয়। পরবর্তীতে তিনি (জালাল) ও তার স্ত্রী পুনরায় ওষুধ এবং ব্যবস্থাপত্র নিয়ে চিকিৎসক অনন্যা দাসের কাছে যান। ডাঃ অনন্যা দাস তার দেয়া ব্যবস্থাপত্রের সাথে দোকানীর দেয়া ওষুধের কোন মিল নেই বলে জানান।

চিকিৎসকের কথা শুনে সাথীর বাবা তাৎক্ষনিক ওষুধ ও ব্যবস্থাপত্র নিয়ে মিজানের দোকানে গেলে মিজান ও তার বড় ভাই আউয়াল বক্তিয়ার গৃহবধূ সাথী বেগমের বাবা জালালকে গালিগালাজ করে মারধর করে তাড়িয়ে দেয়।

জালাল বখতিয়ার আরও জানান, বুধবার সকালে তার মেয়ে অন্তঃস্বত্তা সাথী গুরুতর অসুস্থ্য হয়ে পরলে তাকে উপজেলা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এ ঘটনায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

এ বিভাগের আরো সংবাদ

মন্তব্য করুন