শিরোনাম :

পরকীয়া ঢাকতে সন্তানকে হত্যা করলো মা


শুক্রবার, ১৩ এপ্রিল ২০১৮, ০২:২৬ অপরাহ্ণ, বাংলাপ্রেস ডটকম ডটবিডি

পরকীয়া ঢাকতে সন্তানকে হত্যা করলো মা

ডেস্ক প্রতিবেদন: নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজার উপজেলায় হৃদয় (৯) নামের এক শিশুকে মা শেফালী বেগম (৩১) পুড়িয়ে হত্যা করেছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। এসময় তার অপর শিশু সন্তান জিহাদও (৫) পুড়ে গেছে। তাকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যাওয়া হয়। পরে তার অবস্থার অবনতি হলে তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়।মায়ের অনৈতিক কর্মকাণ্ড দেখে ফেলায় হৃদয়কে পুড়িয়ে হত্যা করা হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে।উপজেলার বাড়ৈপাড়া এলাকায় শুক্রবার ভোরে এ ঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে মরদেহ উদ্ধার করে। শেফালীকে আটক করা হয়েছে। শেফালীর বাবার বাড়ি ঢাকার কেরানীগঞ্জে।

নিহত হৃদয় স্থানীয় ৩৫ নম্বর বাড়ৈপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের তৃতীয় শ্রেণির ছাত্র এবং প্রবাসী আনোয়ারের ছেলে।বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি ও বাড়ৈপাড়া এলাকার জয়নাল আবেদীন জানান, নিহত হৃদয় ৩৫ নম্বর বাড়ৈপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের তৃতীয় শ্রেণির ছাত্র ছিল। প্রায় ১১ বছর আগে শেফালীর সঙ্গে স্থানীয় বিল্লাল টেইলারের ছেলে আনোয়ার হোসেনের বিয়ে হয়। জীবিকার তাগিদে দীর্ঘদিন ধরেই আনোয়ার হোসেন মালয়েশিয়া প্রবাসী।

জয়নাল আবেদীন জানান, উচিৎপুরা ইউনিয়নের বাড়ৈপাড়া এলাকায় শ্বশুরবাড়িতেই দুই সন্তানকে নিয়ে বসবাস করতেন শেফালী। এরইমধ্যে স্থানীয় মোমেনের সঙ্গে তার অনৈতিক সম্পর্ক গড়ে ওঠে। ঘটনার দিন রাতে মোমেন তার ঘরে অবস্থান করছিল।

এসময় মায়ের সঙ্গে অন্য পুরুষের অনৈতিক সম্পর্কের বিষয়টি দেখে ফেলায় ঘুমের বড়ি সেবন করিয়ে ঘুমন্ত শিশুদের গায়ে আগুন ধরিয়ে দেয়া হয়। এসময় ঘটনাস্থলেই হৃদয় মারা যায়। এসময় পাশেই ঘুমিয়ে থাকা শিশু জিহাদও ঝলসে যায়। পরে তাকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ(ঢামেক)হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক ডাক্তার উত্তম আরটিভি অনলাইনকে জানান, শিশু জিহাদের এক হাত ও দুই পা পুড়ে গেছে। তাকে বার্ন ইউনিটে পাঠানো হয়েছে।

এদিকে স্থানীয় যুবক রিপন জানান, মোমেনের সঙ্গে শেফালীর দীর্ঘদিন ধরেই অনৈতিক সম্পর্কের কারণে তার প্রবাসী স্বামী তাকে তালাক দিয়ে দেন। কিন্তু এরপরও তিনি সন্তানদের এখানেই বসবাস করতে থাকেন। ঘটনার দিন রাতে মোমেন তার ঘরেই ছিল।আড়াইহাজার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এম এ হক আরটিভি অনলাইনকে বলেন, ঘটনাস্থল থেকে মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। শিশুদের মা শেফালীকে আটক করা হয়েছে। তাকে জিজ্ঞাসাবাদ চলছে।

এ বিভাগের আরো সংবাদ

মন্তব্য করুন