শিরোনাম :

মূত্রথলিতে কী করে আটকে গেল ফোনের চার্জার


সোমবার, ৯ জুলাই ২০১৮, ০২:৫৫ অপরাহ্ণ, বাংলাপ্রেস ডটকম ডটবিডি

মূত্রথলিতে কী করে আটকে গেল ফোনের চার্জার

ডেস্ক প্রতিবেদন: উঠতি বয়সের ছেলেমেয়েরা অনেক সময়ই বিব্রতকর কিছু পরিস্থিতিতে পড়ে যায়, তা নতুন কিছু নয়। কিন্তু সম্প্রতি চীনের এক ১৩ বছর বয়সী কিশোর ঘটায় অবিশ্বাস্য এক ঘটনা। সে হাসপাতালে ভর্তি হওয়ার পর ডাক্তাররা দেখেন, তার যৌনাঙ্গ দিয়ে মূত্রথলিতে প্রবেশ করানো হয়েছে এক ফোনের চার্জার। খবর আইএফএলসায়েন্স।

এ ঘটনার সূত্রপাত হয় কৌতূহল থেকে। নিজের যৌনাঙ্গের ব্যাপারে কৌতূহল থেকে ওই কিশোর একটি ফোনের চার্জারের মাথা কেটে ফেলে এবং তারটিকে নিজের যৌনাঙ্গের মূত্রনালির ভেতরে ধীরে ধীরে প্রবেশ করায়। সে ২০ সেন্টিমিটার তার প্রবেশ করাতে সক্ষম হয়। কিন্তু এরপর বের করতে গিয়ে দেখে তা আটকে গিয়েছে। এ অবস্থায় সে নিজের বাবা-মাকে এ ঘটনা জানায় এবং তাকে স্থানীয় হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়।

হাসপাতালের চিকিৎসকরা তারটিকে লুব্রিকেন্ট দিয়ে পিচ্ছিল করে বের করে আনার চেষ্টা করেন। কিন্তু তারা তো সফল হনইনি, বরং ছেলেটি বেশ ব্যথা পায়। এরপর তাকে হারবিন চিলড্রেন’স হসপিটালে স্থানান্তর করা হয়। সে হাসপাতালের ইউরোলজিস্ট ড. ঝু লিয়ান আরও কিছু পরীক্ষা করেন।

পরীক্ষার পর জানা যায়, তারটি ওই কিশোরের মূত্রথলির ভেতরে গিয়ে পেঁচিয়ে যায় এবং গিঁট লেগে যায়, এ কারণে টেনে তা বের করা যাচ্ছিল না।

পরিস্থিতির জটিলতা বুঝতে পেরে চিকিৎসকরা অস্ত্রোপচার করেন। তারা মূত্রথলি কেটে এর ভেতর থেকে তারের গিঁট লাগা অংশটি অপসারণ করেন। বাকি অংশটি তার মূত্রনালি দিয়েই বের করে আনা হয়। দুই সপ্তাহ হাসপাতালে থাকার পর বাড়ি ফিরে যায় কিশোরটি।

এ বিভাগের আরো সংবাদ

মন্তব্য করুন