ব্রেকিং নিউজ
বাংলাপ্রেস-এর ফেসবুক পেজটি হ্যাকড হওয়ায় আমরা আন্তরিকভাবে দুঃখিত। পেজটি উদ্ধারের চেষ্টা চলছে।
শিরোনাম :

করোনাকে হারালেন ‘দাদী আনা’


রবিবার, ২৬ এপ্রিল ২০২০, ০৩:৫৪ অপরাহ্ণ, বাংলাপ্রেস ডটকম ডটবিডি

করোনাকে হারালেন ‘দাদী আনা’

ডেস্ক: গল্প নয়, সত্যি। তিনি যখন একটি নার্সিংহোমে ভরতি ছিলেন তখন স্পেনে করোনার প্রকোপ দেখা দেয়। তিনিও আক্রান্ত হন। করোনাকে হারালেন ‘দাদী আনা’।

স্পেনের সবথেকে বেশি বয়সী করোনা আক্রান্ত, যিনি সদ্য সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন, তাঁর কথা শুনলে গল্প বলে মনে হওয়াটা স্বাভাবিক।

১০৭ বছরের এই বৃদ্ধা হাতে গোনা সেই ক’জন মানুষের মধ্যে এক জন যারা ১৯১৮-র ভয়াবহ স্প্যানিশ ফ্লু এবং ২০২০-এর করোনা অতিমারী দুইয়েরই সাক্ষী হলেন।

তিনি শুধু সাক্ষী-ই হলেন না, লড়াই করে এই ভাইরাসকে হারালেনও। সে সময়ে আনা দেল ভালের বয়স ছয় মাসও হয়নি, যখন মারণ স্প্যানিশ ফ্লু থাবা বসিয়েছিল পৃথিবীর বুকে। তিন বছরের প্রকোপে শেষ হয়ে গিয়েছিল পৃথিবীর এক তৃতীয়াংশ জনসংখ্যা। সে বার ফ্লু-কে হারিয়ে ছিলেন খুদে আনা। এ বার করোনাকে হারালেন ‘ঠাম্মা আনা’।

তিনি একটি নার্সিংহোমে ভর্তি ছিলেন যখন স্পেনে করোনার প্রকোপ দেখা দেয়। তিনিও কোভিড-১৯ পজিটিভ হন। বাড়ির লোক তো আশাই ছেড়ে দিয়েছিলেন যে ‘দাদী’কে ঘরে ফেরাতে পারবেন! কিন্তু, সবাইকে অবাক করে এবং বয়সের চ্যালেঞ্জ অতিক্রম করেই করোনা-যুদ্ধ জয় করেন ১০৭ বছরের এই লড়াকু লেডি! আপাতত ঘরে ফিরেছেন তিনি।

তার নাতনি জানিয়েছেন, নিজের মতো করে ওয়াকারে ভর দিয়ে হাঁটাচলাও করছেন। তবে, চিকিৎসকেরা জানিয়েছেন, এখন তাঁর পরীক্ষার ফলাফল ঠিক থাকলেও ভবিষ্যতের জন্য সতর্ক থাকতে হবে।

এ বিভাগের আরো সংবাদ

মন্তব্য করুন